8.17.2014

শুধু জাকির নালায়েকের জন্য কি বেপর্দা জায়েয ? ব্রার ফিতা দেখা কি যায়েজ ?

জাকির নালায়েকের জন্য কি বেপর্দা হওয়া জায়েয? পর্দা কি শুধু আম মানুষের জন্যে জায়েজ আলেম উলামা বা ইসলাম ধর্ম প্রচারকদের জন্যে কি শরিয়তের পর্দা যায়েজ নয়? তাহলে আসুন দেখি পবিত্র আল কোরাআনুল কারিমে আল্লাহ্‌ রাব্বুল ইজ্জত কি বলতেছেন? তিনি বলতেছেন "তোমরা তাঁদের (নবী পত্নীদের) নিকট কিছু চাইলে পর্দার আড়াল থেকে চাও। এই বিধান তোমাদের ও তাদের হৃদয়ের জন্য অধিকতর পবিত্রতার কারণ। তোমাদের কারো জন্য আল্লাহর রাসূলকে কষ্ট দেওয়া সংগত নয় এবং তাঁর মৃত্যুর পর তাঁর পত্নীদেরকে বিবাহ করা তোমাদের জন্য কখনো বৈধ নয়। আল্লাহর দৃষ্টিতে এটা ঘোরতর অপরাধ। (সূরা আহযাব (৩৩) : ৫৩)

উম্মুল মুমিনীন উম্মে সালামা আলাইহাস সালাম বলেন, আমি একদা রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম-উনার নিকট ছিলাম। উম্মুল মুমিনীন মায়মুনা আলাইহাস সালাম ও সেখানে উপস্থিত ছিলেন। এমন সময় আবদুল্লাহ ইবনে উম্মে মাকতুম রাদ্বীয়াল্লাহু তা'লা আনহু ও উপস্থিত হলেন। এটি ছিল পর্দা বিধানের পরের ঘটনা। তখন রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম বললেন, আপনারা তার সামনে থেকে সরে যান। আমরা বললাম, তিনি তো অন্ধ, আমাদেরকে দেখছেন না?! তখন রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম বললেন, আপনারাও কি অন্ধ? আপনারা কি দেখছেননা ? - সুনানে আবু দাউদ ৪/৩৬১, হাদীস : ৪১১২; জামে তিরমিযী ৫/১০২, হাদীস : ২৭৭৯; মুসনাদে আহমাদ ৬/২৯৬; শরহুল মুসলিম, নববী ১০/৯৭; ফাতহুল বারী ৯/২৪৮।

শুধু জাকির নালায়েকের জন্য কি বেপর্দা জায়েয ? ব্রার ফিতা দেখা কি যায়েজ
শুধু জাকির নালায়েকের জন্য কি বেপর্দা জায়েয ? ব্রার ফিতা দেখা কি যায়েজ
উপরোক্ত কোরআন ও হাদীস শরিফে হযরত উম্মাহাতুল মুমীনিন আলাইহিন্নাস সালাম উনাদের কঠোর পর্দা করা সম্পর্কে বলা হয়েছে । অথচ উনারা উম্মতের মা। এ প্রসঙ্গে মহান আল্লাহ পাক তিনি ইরশাদ করেন, “হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম তিনি মু’মিনদের নিকট তাঁদের জানের চেয়ে প্রিয়। আর উনার পবিত্র আযওয়াজ বা আহলিয়া আলাইহিন্নাস সালাম উনারা হলেন তাঁদের (মু’মিনগণের) মাতা।”

উনারা মুমিনের মাতা হওয়ার পরেও উনারা পর্দা করেছেন , তাহলে জাকির নায়েক কে যে তার জন্য বেপর্দা হয়ে ইসলাম প্রচার জায়িয ? আবার পর্দার আড়াল থেকে লথা বলা বা কিছু চাওয়ার জন্য আদেশ করেছেন। তাহলে জাকির নায়েক কুরয়ানের আদেশ খিলাপ করে কোন ইসলাম প্রচার করে?


সুরা নূর শরীফের ৩০ নম্বর আয়াত শরিফে বলা হয়েছে-‘মুমিনদেরকে বলুন, তারা যেন তাদের দৃষ্টি নত রাখে এবং যৌনাংগের হেফাযত করে। এতে তাদের জন্য খুব পবিত্রতা আছে।" এই আয়াত শরিফে আল্লাহ পাক পুরুষদের ও পর্দা করার কথা বলেছেন । তাহলে জাকির নায়েক কি করে এই আয়াত শরীফ বিরুদ্ধ কাজ করে?


জাকির নাকি কত বড় স্কলার !!!! সে কুরআন ও হাদীস শরিফের আয়াতের রেফারেন্স দেয় । তাহলে সে কি জানেনা পর্দা নিয়ে আয়াত শরিফের কথা ,হাদিস শরিফের কথা ?

সে কি জানেনা সুরা নুর, সুরা নিসা, সুরা আহযাব,সুরা মুনতাহিনায় মহান আল্লাহ পাক পর্দা ফরজে আইন করেছে ? জাকির জানে। যেনে শুনেই সে বেপর্দা হয়ে ইসলাম প্রচার করে। কারন জাকির একাধারে মুসলমান নামধারী গুপ্ত ইহুদী।সে ইসলাম নয় ,কাফিরদের মতবাদ প্রচার করছে। 



বিঃদ্রঃ যারা বেপর্দাকে সমর্থন করে জাকিরের পক্ষে দলিলবিহীন কথা বলবে তাদের কমেন্ট ডিলিট করা হবে বিনা নোটিশে।

বিশেষ দ্রষ্টব্যঃ পোষ্ট টা পড়ে যদি ভালো লাগে তাহলে অবশ্যই কমেন্ট বক্স এ আপনার মতামত জানাবেন আর আপনার বন্ধু বান্দব দের সাথে শেয়ার করতে ভুলবেন্নাআসসালামু আলাইকুমফি আমানিল্লাহ !!! আল্লাহ তায়ালা আমাদের সবাইকে সঠিক বুজ দান করুন,


সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করুনঃ

এডমিন

আমার লিখা এবং প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা সম্পূর্ণ বে আইনি।

0 facebook: