8.19.2014

আপুমনিরা আপনারা যারা বিবাহিত তারা কি স্বামীর হক্ব ঠিকমতো আদায় করতেছেন?

আসসালামু আলাইকুম আপুমনিরা কেমন আছেন? আশাকরি ভালো আর ভালো থাকবেন এই কামনা করি, আপুমনিরা আপনারা যারা বিবাহিত তারা কি স্বামীর হক্ব ঠিকমতো আদায় করতেছেন? আপুরা আমি দেখেছি অনেক আপুরা উনাদের চরিত্র ভালো কিন্তু পাশের বাসার মাহিন ভাই শাহিন ভাই আসলে আহ্লাদে গদ গদ হয়ে যান তাদের সামনে চুল ঠিক না করে শাড়ি ঠিক না করে ঠোঁটে কড়া লাল লিপস্টিক না দিয়ে গায়ে মন মাতানো সুগন্দি ছাড়া বের হচ্ছেন্না আর যখন কথা বলেন এতো বিনয় মনে হবে উনার সাথে এই বিনয় ভাব প্রকাশ না করলে আপনার কবিরা গুনাহ হবে অথচ আল্লাহ্‌ রাব্বুল আলামিন বলতেছেন (পর পুরুষের সাথে কোমল ও আকর্ষণীও ভঙ্গিতে কথা বলনা ৩৩-৩২) কিন্তু আপনি উনার কথার সম্পূর্ণ বিপরিত শুধু তাই না আপনি যে মন মাতানো শুগন্ধি ব্যবহার করে উনার পাশে বসে গল্প আর হাশি ঠাট্টা করতেছেন আপনি কি জানেন রাসুলে খোদা হাবিবুল্লাহ হুজুরে পাক সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম বলতেছেন যে মহিলা পরপুরুষের জন্যে সুগন্ধি ব্যবহার করে সে বেশ্যা তাহলে দেখা যাচ্ছে আপনি প্রথমে কুরআনুল কারিম দ্বিতিওতো হাদিছ শরীফের সম্পূর্ণ উল্টো, দেখুন আপনার হাশিখুশি আনন্দ প্রেমময় দৃষ্টি, আবেগ, মিষ্টি রাগ বা অনুকম্পা সব কিছুই আপনার স্বামীর জন্যে যদি আপনি পুন্যবতি হয়ে থাকেন কারন আল্লাহ্‌ রাব্বুল আলামিন বলতেছেন আর যারা পুণ্যবতী স্ত্রী তারা অনুগতা এবং লোকচক্ষুর আড়ালে আল্লাহ পাক যা সংরক্ষিত করেছেন তার হেফাজত করে” (সুরা নিসা-৩৪)

যারা বিবাহিত তারা কি স্বামীর হক্ব ঠিকমতো আদায় করতেছেন?
যারা বিবাহিত তারা কি স্বামীর হক্ব ঠিকমতো আদায় করতেছেন?
আপুমনি আপনি কি নিজেকে পুন্যবতি হিসেবে গড়ে তুলেছেন? আপনার স্বামি যখন বাসায় ফেরে আপনি কি তার জন্যে শেজেগুজে অপেক্ষা করেন আপনি কি তার মন খারাপ থাকলে স্নেহের পরশে মাথায় হাত বুলিয়ে দেন নাকি শুধু পাশের বাসার রফিক ভাই শফিক ভাই ভাবি বলে ডাক দিলে বিনয়ে আপ্লুত হন আর স্বামি ডাক দিলে আসছিতো বলে ঝাড়ি দেন চা-কফির কথা বল্লে হিন্দি সিরিয়াল শেষ হওয়ার আগ পর্যন্ত তাকে অপেক্ষা করতে বলেন যে কথা শুনে স্বামীর মনে দুঃখ লাগে সাংসারিক অশান্তির ভয়ে তিনি হয়তো চুপসে যান আপনাকে কিছু বলেন্না কিন্তু আপনি কি জানেন রাসুলে খোদা হাবিবুল্লাহ হুজুরে পাক সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম বলেছেন নারীদের মধ্যে শ্রেষ্ঠ তো সে-ই, যার দিকে তাকালে স্বামীর মন আনন্দিত হয়, সে তার স্বামীর কথা শোনে আর নিজের ব্যাপারে এবং স্বামীর ধন-সম্পদে তার অপছন্দনীয় কোন কাজ থেকে সে বিরত থাকে। (আহমদ-২/২৫১) আপুরা আপনাদের অনেকে স্বামি নামাজের কথা বল্লে রোজার কথা বল্লে ঘেটকি দেন পরকিয়ায় লিপ্ত হন কিন্তু আপনি কি জানেন রাসুলে খোদা হাবিবুল্লাহ হুজুরে পাক সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম বলেন যে যে নারী (জীবদ্দশায়) পাঁচ ওয়াক্ত নামায আদায় করে, রমজানের রোজা রাখে, নিজের সতীত্ব সংরক্ষণ করে, তার স্বামীর আনুগত্য করে- তবে (মৃত্যুর পর) তাকে বলা হবে, জান্নাতের দরজাগুলোর মধ্যে যেটি দিয়ে তোমার পছন্দ- তুমি জান্নাতে প্রবেশ করো (ইবনে হিব্বান)

আপুরা লিখা লম্বা হয়ে যাচ্ছে জানি বিরক্ত হচ্ছেন কিন্তু কি করবো বলেন আজকাল স্বামীকে না বলে কিংবা তার নিষেধ সত্ত্বেও ঘর থেকে বেরিয়ে কোথাও যাওয়া অনুচিত জেনেও অযথা চাহিদা পেশ করে তাকে অস্বস্তিতে ফেলে দিয়ে তাকে কষ্ট দিচ্ছেন অথবা অন্যদের প্রশংসা অথবা নিন্দা করে সংসারে অশান্তি ডেকে আনছেন যা কোনো বুদ্ধিমতি স্ত্রীর কাজ নয় তিরমিজি শরিফে আবু উমামা রাঃ থেকে বর্ণিত রাসুলে খোদা হাবিবুল্লাহ হুজুরে পাক সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম এর হাদিসে জানা যায়, যে স্ত্রী তার স্বামীর অবাধ্য হল, তার ইবাদত আল্লাহ পাকের কাছ পর্যন্ত পৌঁছে না (কবুল হয় না)এমনকি বুখারি ও মুসলিম শরিফে বর্ণিত হাদিসে রাসুল সা. বলেছেন, স্বামীর অনুমতি ছাড়া স্ত্রীর নফল রোজা পালন উচিত নয়তার অনুমতি ছাড়া অন্য কাউকে নিজের ঘরে ঢোকার অনুমতিও দেয়া বৈধ নয়। (বুখারি-৪৮৯৯, মুসলিম-১০২৬)। ঠিক তেমনিভাবে কোন কারণ ছাড়া অহেতুক কোনো স্ত্রী যদি তার স্বামীর সঙ্গে এক বিছানায় ঘুমাতে অস্বীকার করে এবং এ কারণে স্বামী তার স্ত্রীর উপর রাগান্বিত হল, তবে সকাল পর্যন্ত ফেরেশতারা ওই নারীর ওপর অভিশাপ দিতে থাকে। (বুখারি-৩০৬৫, মুসলিম-১৪৩৬)।

আরো লিখার ইচ্ছা ছিলো কিন্তু লম্বা লিখা সবাই পড়তে রাজি না যাই হউক আপুমনিরা আপনাদের সমিপে একটাই নিবেদন সাজুন তার জন্যে যার হক্ব আজকে আর কিছু বললাম না পরবর্তী পষ্টে ইন-শা-আল্লাহ্‌ এ ব্যপারে লিখার চেষ্টা করবো ভালো থাকবেন, আর-কি! আজ থেকে নিজেকে বদলাতে পারবেন তো ????

বিশেষ দ্রষ্টব্যঃ পোষ্ট টা পড়ে যদি ভালো লাগে তাহলে অবশ্যই কমেন্ট বক্স এ আপনার মতামত জানাবেন আর আপনার বন্ধু বান্দব দের সাথে শেয়ার করতে ভুলবেন্নাআসসালামু আলাইকুমফি আমানিল্লাহ !!! আল্লাহ তায়ালা আমাদের সবাইকে সঠিক বুজ দান করুন।


সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করুনঃ

এডমিন

আমার লিখা এবং প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা সম্পূর্ণ বে আইনি।

0 facebook: