9.22.2014

প্রথম অহি নাজিল এবং হেরা গুহার সংক্ষিপ্ত ইতিহাস ।


হেরা গুহার সংক্ষিপ্ত ইতিহাসঃ কোরআন উল কারিম নাযিলের ছয় মাস আগে থেকেই আল্লাহ সুবাহানাহু ওয়া তায়ালা উনার পেয়ারা হাবিব নূরে মুজাসসাম হাবিবুল্লাহ হুজুরে পাক হজরত মোহাম্মদ আহাম্মদ মুস্তাফা () উনাকে স্বপ্নের মাধ্যমে এ মহান কাজের জন্য প্রস্তুত করে নিচ্ছিলেনইতিহাসের প্রমাণ অনুযায়ী প্রথম ওহী এসেছিল রমযান মাসের ২১ তারিখ সোমবার রাত্রেনূরে মুজাসসাম হাবিবুল্লাহ হুজুরে পাক হজরত মোহাম্মদ আহাম্মদ মুস্তাফা () এর বয়স ছিল তখন ৪০ বছর ৬ মাস ১২ দিন

হযরত আয়েশা সিদ্দিকা (আলাইহিস সালাম) হতে বর্ণিত আছে, প্রিয় নবী নূরে মুজাসসাম হাবিবুল্লাহ হুজুরে পাক হজরত মোহাম্মদ আহাম্মদ মুস্তাফা () উনার উপর ওহী নাযিলের সূচনা হয়েছিল স্বপ্নের মাধ্যমেতিনি স্বপ্নে যা দেখতেন তা দিনের আলোর মতো তাঁর জীবণে প্রতিভাত হতোহযরত জীবরাঈল (আলাইহিস সালাম) এর মাধ্যমে ওহী প্রাপ্তির আগে আস্তে আস্তে তিনি নির্জনতা প্রিয় হয়ে ওঠেন, হেরা গুহায় নিভৃতে আল্লাহ তায়ালা উনার ধ্যানে তিনি মশগুল হয়ে পড়েন এবং বিশাল সৃষ্টি ও তার উদ্দেশ্য সম্পর্কে গভীর চিন্তা ভাবনা করতে থাকেনএভাবেই হেরা গুহায় উনার দিন ও রাত কাটে
প্রথম অহি ও হেরা গুহার সংক্ষিপ্ত ইতিহাস ।
প্রথম অহি ও হেরা গুহার সংক্ষিপ্ত ইতিহাস ।
খাবার পানি শেষ হয়ে গেলে সেসব নেয়ার জন্যেই তিনি শুধু বাড়ি যেতেনমাঝে মাঝে উনার অতি প্রিয় সহধর্মিণী হযরত বিবি খাদিজা (আলাইহিস সালাম) উনাকে হেরা গুহায় খাবার দিয়ে আসতেনএমনি করে একদিন জীবরাঈল (আলাইহিস সালাম) নূরে মুজাসসাম হাবিবুল্লাহ হুজুরে পাক হজরত মোহাম্মদ আহাম্মদ মুস্তাফা () উনার কাছে এসে গভীর কণ্ঠে তাঁকে বলেন ইকরাপড়ুননূরে মুজাসসাম হাবিবুল্লাহ হুজুরে পাক হজরত মোহাম্মদ আহাম্মদ মুস্তাফা () বিস্ময়ে হতবাক হয়ে গেলেনউদ্বেলিত কণ্ঠে তাঁকে বললেন আমি তো পড়তে জানি না

জীবরাঈল (আলাইহিস সালাম) তখন নূরে মুজাসসাম হাবিবুল্লাহ হুজুরে পাক হজরত মোহাম্মদ আহাম্মদ মুস্তাফা () কে বুক চেপে ধরে আবার বলেন, পড়ুনতৃতীয় বার যখন জীবরাঈল (আলাইহিস সালাম) তাঁকে বুকে আলিংগন করে ছেড়ে দিয়ে বলেন, পড়ুন! তখন নূরে মুজাসসাম হাবিবুল্লাহ হুজুরে পাক হজরত মোহাম্মদ আহাম্মদ মুস্তাফা () ওহীর প্রথম পাঁচটি আয়াত [পাঠ করুন, আপনার পালনকর্তার নামে যিনি সৃষ্টি করেছেনসৃষ্টি করেছেন মানুষকে জমাট রক্তপিন্ড থেকেপাঠ করুন, আপনার পালনকর্তা মহা দয়ালু, যিনি কলমের সাহায্যে শিক্ষা দিয়েছেন, শিক্ষা দিয়েছেন মানুষকে যা সে জানত না। -সূরা আলাক্ব: প্রথম পাঁচ (১ - ৫) আয়াত।] পড়লেনতারপর সাথ সাথে হযরত জীবরাঈল (আলাইহিস সালাম) সেখান থেকে চলে গেলেন

অতপর: জীবরাঈল (আলাইহিস সালাম) চলে যাবার পর নূরে মুজাসসাম হাবিবুল্লাহ হুজুরে পাক হজরত মোহাম্মদ আহাম্মদ মুস্তাফা () ঘরে ফিরলেন তারপর তাঁর প্রিয়তমা স্ত্রীকে বললেন আমাকে চাদর দিয়ে শক্ত করে ঢেকে দাওআমাকে চাদর দিয়ে ঢেকে দাওহযরত খাদীজা (আলাইহিস সালাম) প্রিয় নবীকে চাদর দিয়ে জড়িয়ে ধরলেনএরপর তাঁকে জিজ্ঞেস করলেন, কি হয়েছে আপনার? আপনি এত কাঁপছেন কেনো? নূরে মুজাসসাম হাবিবুল্লাহ হুজুরে পাক হজরত মোহাম্মদ আহাম্মদ মুস্তাফা () বললেন, একজন অভিনব ব্যক্তি আমার কাছে এসে আমাকে বললেন, পড়ুনআমি বললাম আমি তো পড়তে জানি নাতারপর তিনি আমাকে তিন তিনবার আমাকে বুকের সাথে জড়িয়ে ধরে চাপ দিলেন তারপর তাঁর সাথে আমি পড়তে শুরু করলামতাঁর কথা শুনে খাদিজা (আলাইহিস সালাম) বললেন, আপনার ভয় পাওয়ার কোন কারণ নেই কেননা আপনি মানুষের উপকার করেন, মানবতার সেবা করেন, এতীমদের আশ্রয় দেন খাদিজা (আলাইহিস সালাম) প্রিয় নবীকে তাঁর চাচাত ভাই ওরাকা ইবনে নফলের কাছে নিয়ে গেলেনওরাকা ইবনে নওফেল ছিলেন ঈসায়ী ধর্মের আলেম এবং হিব্রু ভাষার পন্ডিত ব্যক্তি ছিলেনসে সময় তিনি বয়সের ভারে ক্লান্ত এবং দৃষ্টিহীন হয়ে পড়েছিলেনহযরত খাদীজা (আলাইহিস সালাম) বললেন ভাইজান, নূরে মুজাসসাম হাবিবুল্লাহ হুজুরে পাক হজরত মোহাম্মদ আহাম্মদ মুস্তাফা () কথা শুনুনরাসূলুল্লাহ () তাকে হেরা গুহার সব ঘটনার কথা বর্ণনা করলেনশুনে ওরাকা বললেন, তিনি সেই দৃত জীবরাঈল (আলাইহিস সালাম) যিনি হযরত মুসা (আলাইহিস সালাম) এর কাছে ওহী নিয়ে আসতেনহায় আমি যদি সেই সময় পর্যন্ত বেঁচে থাকতে পারতাম যখন তোমার কওমের লোকেরা তোমাকে জন্মভূমি থেকে বের করে দিবেনূরে মুজাসসাম হাবিবুল্লাহ হুজুরে পাক হজরত মোহাম্মদ আহাম্মদ মুস্তাফা () অবাক হয়ে বললেন, কেন আমাকে তারা মাতৃভূমি থেকে বের করে দিবে? ওরাকা বললেন, তুমি যে ওহী লাভ করেছ, এ ধরণের ওহী যখনই কোন নবী পেয়েছেন তাঁর সাথে এভাবেই স্বজাতির পক্ষ থেকে শত্রুতা করা হয়েছেযদি আমি সেদিন পর্যন্ত বেঁচে থাকি তাহলে অবশ্যই আমি তোমার সাহায্যে এগিয়ে আসব

বিশেষ দ্রষ্টব্যঃ পোষ্ট টা পড়ে যদি ভালো লাগে তাহলে অবশ্যই কমেন্ট বক্স এ আপনার মতামত জানাবেন আর আপনার বন্ধু বান্দব দের সাথে শেয়ার করতে ভুলবেন্নাআসসালামু আলাইকুমফি আমানিল্লাহ !!! আল্লাহ তায়ালা আমাদের সবাইকে সঠিক বুজ দান করুন।


সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করুনঃ

এডমিন

আমার লিখা এবং প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা সম্পূর্ণ বে আইনি।

0 facebook: