6.24.2016

আবারো মাইনাস- টু’র পথে বাংলাদেশ

আবারো মাইনাস- টু’র পথে বাংলাদেশ
আবারো মাইনাস- টু’র পথে বাংলাদেশ
বাংলাদেশে কি ঘটতে যাচ্ছে সে সম্পর্কে আমি আগেও কয়েকটি পোস্ট দিয়েছিএবার এই পোস্টে বিষয়টি আরো ভেঙ্গে বলবোঃ আপনারা জানেন, বাংলাদেশের ক্ষমতা পুরোপুরি নিজ হাতে নেওয়ার ইচ্ছা আমেরিকার বহু দিনেরএজন্য তাদের পছন্দ খালেদা-হাসিনা নয়, বরং ড. ইউনুসের মত শতভাগ আমেরিকাপন্থী পুতুল সরকারকে আনাসেই উদ্দেশ্য ২০০৭-এ ঘটলো ১/১১, এরপর দুই নেত্রীকে জেলে ঢুকানো এবং অতঃপর মাইনাস-টু সফল করার কার্যক্রমপূরোটা ঘটনাই ঘটিয়েছিলো মার্কিন গোয়েন্দা সংস্থা সিআইএ, উদ্দেশ্য মাইনাস-টু ঘটিয়ে ইউনুসকে ক্ষমতায় আনাসে সময় আমেরিকা মাইনাস-টুফর্মুলায় ব্যর্থ হওয়ার যতগুলো কারণ ছিলো তার মধ্যে অন্যতম ছিলো ভারতের সমর্থন না পাওয়াআর ভারতের সমর্থন না পাওয়ার কারণ ছিলো তখন ভারতে ক্ষমতায় রুশপন্থী কংগ্রেস থাকা

কিন্তু এখন ভারতের ক্ষমতায় বিজেপি, যে শতভাগ আমেরিকাপন্থীএখন আমেরিকা বিনা বাধায় তাদের মাইনাস-টু ফর্মুলা বাস্তবায়ন করতে পারবেতবে এক্ষেত্রে তাদের পলিসি ছিলো ভিন্নধর্মীকার্য ছিলো- দুইদলে মার্কিন এজেন্টদের ঢুকিয়ে দুটো দলের অবস্থা নাজেহাল করে দেওয়াআমি বলবো- ইতিমধ্যে মাইনাস ওয়ান, অর্থাৎ খালেদার পতন হয়ে গেছেমার্কিন রিভার্স পলিসির কাছে হার মেনে গেছে খালেদা জিয়াবিএনপির মার্কিনপন্থী পলিসি মেকারদের ভুল ডিসিশনেই পথ হারিয়েছে বিএনপিএইবার হাসিনার পালারুশবাদী আওয়ামী লীগে প্রবেশ করেছে অনেক ছদ্মবেশী মার্কিনপন্থীইনু, মাল মুহিত, নুরুল নাহিদ, ওবায়দুল কাদের অভ্যন্তরীণ পরিচয় নিয়ে আমার যথেষ্ট সন্দেহ আছে, এরা ভেকধারী আওয়ামী সদস্য হলেও হতে পারে, যারা মার্কিন পলিসি সফল করে মাইনাস হাসিনার পথ সুগম করছেবর্তমানে আওয়ামী লীগ এমন সব সিদ্ধান্ত গ্রহণ করছে, যা দেখে মনে হচ্ছে, যে বা যারাই বুদ্ধিগুলো দিচ্ছে, তাদের উদ্দেশ্য ভালো না, আওয়ামীলীগের পতন ঘটাতে তথা পাবলিক গ্রহণযোগ্যতা শূণ্যের কোঠায় নিয়ে আসতেই তাদের এই কার্যক্রমতবে দুঃখের বিষয়, আওয়ামীলীগ তার দলের মধ্যে প্রবেশ করা ছদ্মবেশী আমেরিকাপন্থীদের চিনতে পারেনি, যারা সিদ কাটতে কাটতে অনেক দূর এগিয়ে গেছে। 

আওয়ামীলীগের উচিত দলের প্রবেশ করা ছদ্মবেশী আমেরিকাপন্থী, অথবা যাদের সন্দেহ হয় অথবা ১/১১ এ জড়িত নেতাদের গণহারে দল থেকে বহিষ্কার করানয়ত খুব শিঘ্রই দেখা যাবে, মাইনাস টু করে নতুন কোন দলের উত্থান ঘটাবে আমেরিকা, আর মার্কিনপন্থী সেই পুতুল দলের প্রধান হঠাৎ করেই বনে যাবে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী


এখন আওয়ামীলীগকে মার্কিন ইস্যু (যেমন কথিত সংখ্যালঘু নির্যাতন, কথিত নাস্তিক হত্যা, আইএস ইস্যু) এবং আমেরিকান ছদ্মবেশী এজেন্ট এ দুটোর থেকে বাচতে হবেএকই সাথে মনে রাখতে হবে মোদিও কিন্তু মার্কিন এজেন্ট, তাই সেখানেও সাবধানমার্কিন অদৃশ্য শক্তিটা বাংলাদেশে এখন এতটাই শক্ত হয়ে গেছে সেটা রুখতে আওয়ামীলীগের যদি বিএনপির সাথে জোটও বাধতে হয়, তবে সেটাও ভুল ডিসিশন হবে না বলে মনে হয়


সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করুনঃ

এডমিন

আমার লিখা এবং প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা সম্পূর্ণ বে আইনি।

0 facebook: