6.20.2016

অভিজিৎ মুখার্জী সত্য বলায় তার উপর খেপেছে বাংলাদেশের হিন্দুরা

অভিজিৎ মুখার্জী সত্য বলায় তার উপর খেপেছে বাংলাদেশের হিন্দুরা
অভিজিৎ মুখার্জী সত্য বলায় তার উপর খেপেছে বাংলাদেশের হিন্দুরা
ধর্মের কারণে সংখ্যালঘুদের উপর হামলা হচ্ছে না, প্রণবের ছেলে অভিজিৎ এমন বক্তব্য দেওয়ায় তার উপর বেজায় ক্ষেপেছে বাংলাদেশের হিন্দুরাঅন্তত হিন্দু আইডি ও প্রথম আলোর ফেসবুক পেইজের কমেন্টগুলো সেরকমই বলছে

এর দ্বারা এও প্রমাণ হয়, বাংলাদেশের হিন্দুরা আর আগের মত উপর দিয়ে অসাম্প্রদায়িকতা তথা ভেজা বেড়াল রূপ প্রকাশ করবে নাতারা এখন থেকে তাদের উগ্রহিন্দুত্বপনা প্রকাশ করবেতারা মুসলমানদের সাথে আর সম্প্রীতির সাথে থাকবে না

আমি জানি, এখনও অনেক মুসলমানদের হিন্দুদের সাথে সম্প্রীতির সাথে বসবাসের পক্ষপাতিকিন্তু তাদের এ আশায় গুড়েবালিমুসলমানরা যতই হিন্দুদের পাশে থাকার চেষ্টা করুক, হিন্দুরা এখন উঠতে বসতে মুসলমানদের লাথি মারা চেষ্টা করবেতারা জানে ভারতে ক্ষমতায় আছে বিজেপি আর বাংলাদেশে আছে হিন্দুতোষক আওয়ামীলীগতাই তারা যতই বেয়ারা হোক, তাদের কিছুই হবে না


অভিজিৎ মুখার্জীর বক্ত্যব্যের সারাংশঃ বাংলাদেশে ধর্মীয় কারণে সংখ্যালঘুদের ওপর হামলা হচ্ছে বলে মনে করেন না ভারতের লোকসভার সদস্য ও দেশটির বর্তমান রাষ্ট্রপতি প্রণব মুখার্জির ছেলে অভিজিৎ মুখার্জিতিনি বলেন, যে হামলা হচ্ছে, সেগুলো সংখ্যাগরিষ্ঠ মুসলিম সম্প্রদায়ের ওপরও হচ্ছেএকটি গোষ্ঠী তাদের উদ্দেশ্য বা মতের জন্য করছেধর্মের ভিত্তিতে সম্পর্ক নষ্ট করার চেষ্টা হচ্ছেএটি উপেক্ষা করা উচিত গতকাল রোববার বিকেলে নিউ ইস্কাটনে সংগঠনের নিজ কার্যালয়ে বাংলাদেশ-ভারত মৈত্রী সমিতির দেওয়া সংবর্ধনা অনুষ্ঠান শেষে আলাপকালে অভিজিৎ মুখার্জি এ কথা বলেন বিস্তারিতঃ http://archive.is/9sk8g

যাইহোক বাংলাদেশে যে ধর্মের কারণে সংখ্যালঘুদের উপর হামলা এবং নির্যাতন হচ্ছে না এটা প্রণব মুখার্জীর ছেলে অভিজিৎ মুখার্জী নিজের মুখেই স্বীকার করলোরুশপন্থী কংগ্রেস দলের এ সদস্য এও কৌশলে বুঝিয়ে দিলো, ‘বাংলাদেশে ধর্মের কারণে সংখ্যালঘুদের উপর হামলা হচ্ছেএটা প্রচার করে আমেরিকানপন্থীরা (বিজেপি কিন্তু আমেরিকানপন্থী) সুযোগ নিতে চাইছে, নেপথ্যে মার্কিনীদের গোপন প্রোপাগান্ডা এবং এজেন্ডা বাস্তবায়নের লক্ষ্য


তারমানে অভিজিতের কথায় এটাও প্রমাণ হয়, এখন যারা সংখ্যালঘু নির্যাতন’ ‘সংখ্যালঘু নির্যাতনবলে চিৎকার চেচামেচি করছে তারা নিশ্চিত আমেরিকার দালাল এবং আমেরিকার স্বার্থ রক্ষা করাই এদের কাজ তাই যে সকল হিন্দু সংগঠন এখন সংখ্যালঘু নির্যাতনের ব্যানার নিয়ে কাজ করছে, এদের চিহ্নিত করা জরুরী, এরা সিআইএর গোপন পরিকল্পনা বাস্তবায়নকারী, এতে কোন সন্দেহ নাই


সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করুনঃ

এডমিন

আমার লিখা এবং প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা সম্পূর্ণ বে আইনি।

0 facebook: