7.08.2016

আপনি কি কোরআন সুন্নাহ অনুসারে দাইয়্যুসের কাতারে চলে গেছেন?

আপনি কি কোরআন সুন্নাহ অনুসারে দাইয়্যুসের কাতারে চলে গেছেন?
আপনি কি কোরআন সুন্নাহ অনুসারে দাইয়্যুসের কাতারে চলে গেছেন?
ভাইয়েরা আপনারা যারা নিজেদের স্ত্রীদেরকে পরপুরুষের চোখের মনোরঞ্জনের ব্যবস্থা করছেন, স্ত্রীদের ছবি ফেসবুকে দিয়ে সবাইকে দেখাচ্ছেন, স্ত্রীকে সাজিয়ে নিয়ে বাইরে বের হচ্ছেন আর পরপুরুষ ও লম্পটরা চোখকে পরিতৃপ্ত করছে সেসব প্রত্যেক পুরুষের দাইয়্যুসটার্মটির ব্যাপারে জ্ঞান থাকা আবশ্যক 

একজন পুরুষ পবিত্র হাদিস শরীফ উনার ভাষ্যমতে দাইয়্যুস সাব্যস্ত হবে যদি সে তার বোন, স্ত্রী, কন্যাদের বেপর্দাভাবে চলাফেরা করাকে বন্ধ না করে, তাদেরকে অশ্লীলতা, ব্যভিচার থেকে দূরে না রাখেযেসব ভাইয়েরা এখনও দাইয়্যুসের কাতারে আছেন আজই তাওবা করুন, নিজের পরিবারের মহিলাদের বুঝান, দাওয়াহ দিনতারপরও না বুঝলে বাধ্য করুন, কেননা তাদের ব্যাপারে আপনি জিজ্ঞাসিত হবেনএমনকি আপনার জান্নাত জাহান্নামও অনেকাংশে তাদের উপর নির্ভর করছেকারণ তারা আপনার অধিনস্ত

রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম তিঁনি বলেছেন, “তিনজন আছেন যাদের দিকে মহান আল্লাহ পাক সুবাহানাহু ওয়া তা'য়ালা কিয়ামাতের দিন নজর দেবেন নাযে পিতামাতার অবাধ্য, যে নারী বেশভূষায় পুরুষের অনুকরণ করে এবং দাইয়্যুস ব্যক্তি

সাহীহ সুনান আন নাসাঈ শরীফ হাদিস শরীফ ২৫৬২

আর যে ব্যক্তি তার পরিবারে ব্যভিচারের প্রশ্রয় দেয় তাকে দাইয়্যুস বলে

এবং একজন নারি যদি বেপর্দায় চলাফেরা করে তাহলে চারজন পুরুষ যাহান্নামে যাবেতারা হলোঃ-
তার পিতা
তার বড়ভাই
তার স্বামী
তার বড়ছেলে

মুসনাদে আহমদ : হাদীস শরীফ ৫৮৩৯

ইমাম আহমাদ রহমাতুল্লাহি আলাইহি উনার বর্ণনাকৃত অন্য আরেকটি সাহীহ হাদীস শরীফ উনার মধ্যে মহান আল্লাহ পাক তিঁনি নজর দেবেন নাএর সাথে এসেছে দাইয়্যুস ব্যক্তি জান্নাতে প্রবেশ করতে পারবে না

মুসনাদে আহমাদ শরীফ

রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম তিঁনি আরও বলেছেন, “ মহান আল্লাহ পাক তিঁনি প্রত্যেক আদম সন্তানের জন্যে তার অংশের অনিবার্য জিনা লিখে রেখেছেন, হোক সে তার ব্যাপারে জ্ঞাত বা অজ্ঞাতচোখের জিনা হল দৃষ্টিপাত করা (যে দিকে বা যার দিকে দৃষ্টি দেবার অনুমতি নেই সেদিকে দৃষ্টিপাত করা), জিহ্বার জিনা হল উচ্চারণ করা (যা উচ্চারণ করা বা বলা বৈধ নয়)আর নফসের ইচ্ছা জাগে (জিনার জন্যে) এবং গুপ্তাংগ তা বাস্তবতায় রূপ দেয় অথবা তা অস্বীকার করে

সাহীহ বুখারী শরীফ : হাদীস শরীফ ৬৬১২

পুর্ববর্তি উলামায়ে কিরাম রহমাতুল্লাহি আলাইহিম উনাদের মতে মুখের জিনা, চোখের জিনা, হাতের জিনা, পায়ের জিনা সবই জিনার দরজা আর অনস্বীকার্য অংশঅতএব যে ব্যক্তি তার স্ত্রীকে পরিবারকে এইসব জিনা থেকে বাধা দেবে না, সে ব্যক্তিও দাইয়্যুসের কাতারে পড়ে যাবেমহান আল্লাহ পাক তিঁনি আমাদেরকে দাইয়্যুস হওয়া থেকে হিফাজত করুন এবং মা বোনদের যথাযথভাবে পর্দা করার তাওফিক দান করুন


এখন উত্তর দিনতো আপনি কি দাইয়্যুস হতে চান? না কি পরিবার কে ঠিক করবেন?


সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করুনঃ

এডমিন

আমার লিখা এবং প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা সম্পূর্ণ বে আইনি।

0 facebook: