8.20.2016

চুর হিন্দু হলে দোষি হয়না উল্টা জামিন হয় কিন্তু মুসলিম খরিদ্দারকে দেশ ছাড়তে হয় জামিন পায়না বলে


















মন্দিরের জমি আত্মসাৎ করে রাগীব আলীর কাছে বিক্রি করায় ওয়ারেন্ট জারি হয়েছিলো সেবায়েত পঙ্কজ কুমার গুপ্তের বিরুদ্ধে। কিন্তু গতকাল সেই পঙ্কজকে জামিন দিয়ে দিলো আদালত। অথচ ৯০ বছরের বৃদ্ধ রাগীব আলীর ওয়ারেন্ট এখনও তোলা হয়নি। উপরন্তু তার ব্যাংক অ্যাকাউন্ট বাজেয়াপ্ত করার কূটচেষ্টা চলছে। (http://goo.gl/VJA4Re)

তারমানে যেই পঙ্কজ কুমার গুপ্ত রাগীব আলীর কাছে টাকার লোভে জমি বিক্রি করলো সে দোষী নয়, রাগীব আলী কেন সেই জমি কিনতে গেলো সেটাই তার দোষ। আর রাগীব আলীর থেকে সাড়ে ৩ হাজার পরিবার কেন জমি কিনলো সেটাও তাদের দোষ। এ অপরাধে রাগীব আলীকে দেশ ছাড়া করা হলো, জনগনের গ্যাস বিদ্যুৎ বিচ্ছিন্ন করার হুমকি দেওয়া হচ্ছে। অথচ জালিয়াত পঙ্কজ কুমার গুপ্তকে ঠিকই জমি বুঝিয়ে দিয়েছে ম্যাজিস্ট্রেট। জালিয়াত পঙ্কজ কুমার গুপ্ত বনে গেছে হাজার কোটি টাকার মালিক। (http://goo.gl/F9K0rx)

এখন শোনা যাচ্ছে-
রাগীব আলী মেডিকেল কলেজটি নাকি পঙ্কজ গুপ্তকে দিয়ে দেওয়া হবে, যার নাম পরিবর্তন করে বৈকুণ্ঠ চন্দ্র গুপ্ত মেডিকেল কলেজকরা হবে। আগে মেডিকেল কলেজ থেকে প্রাপ্ত অর্থ জনকল্যা্ণ্যে ব্যয় করতো রাগীব আলী আর এখন সেই অর্থ ভারতীয় ব্যাংকে জমা করবে পঙ্কজ কুমার গুপ্ত ।

আসলে আমি আগেই বলেছিলাম-

সিলেটে আবার গৌড় গোবিন্দের শাসন চালু হয়েছে । অবশ্য এর জন্য আর কেউ দায়ী নয়, খোদ সিলেটবাসী দায়ী। কারণ কুকুরের পেটে যেমন ঘি হজম হয় না’, ঠিক তেমনি হিংসুটে সিলেটিদের ভালো জিনিস সহ্য হয় না। মুসলমানের শাসন থেকে হিন্দুর শাসনই তাদের বেশি পছন্দ।


সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করুনঃ

এডমিন

আমার লিখা এবং প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা সম্পূর্ণ বে আইনি।

0 facebook: