9.11.2016

এবার পবিত্রভুমি সিলেটে হিন্দু শিক্ষক কর্তৃক মুসলিম ছাত্রকে জোরপূর্বক ধর্ষণ অতঃপর ধর্ষক গ্রেফতার


সিলেটের গোলাপগঞ্জে ৫ম শ্রেণির এক স্কুলছাত্রকে ধর্ষণ করেছে এক হিন্দু প্রধান শিক্ষক। এমনকি বলাৎকারের দৃশ্যের ভিডিওচিত্র ধারণ করে তা ইন্টারনেটে ছড়িয়ে দেয়া হয়েছে। এ ঘটনায় প্রধান শিক্ষক রনজিৎ সেনাপতিকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। শনিবার তাকে আদালতে সোপর্দ করা হয়।
 
রনজিৎ সেনাপতি উপজেলার ভাদেশ্বর নালিউরি এলাকার মৃত সত্যপ্রসন্ন সেনাপতির ছেলে। সে গোলাপগঞ্জ কিন্ডার গার্ডেন এসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক। দীর্ঘদিন থেকে শিক্ষতার আড়ালে নানা অপকর্মের সঙ্গে লিপ্ত থাকার অভিযোগ রয়েছে তার বিরুদ্ধে। 
 
গত ২০ আগস্ট উপজেলার ভাদেশ্বরের মাইজভাগ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে এ ঘটনা ঘটে। তবে বিষয়টি ধামাচাপা দিতে একটি মহল উঠেপড়ে লাগে। এদিকে এ ঘটনা জানাজানি হলে গোলাপগঞ্জ উপজেলাজুড়ে তোলপাড় শুরু হয়। বিক্ষুব্ধ হয়ে উঠেন অভিভাবকরা। তারা ওই শিক্ষকের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি করেছেন।
 
জানা যায়, গত ২০ আগস্ট উপজেলার ভাদেশ্বরে মাইজভাগ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক রণজিৎ সেনাপতি ওই স্কুলের ৫ম শ্রেণির এক ছাত্রকে কৌশলে পাশের একটি কক্ষে নিয়ে যায়। সেখানে ওই ছাত্রকে ধর্ষণ করে সে।
 
ওই ছাত্রের চিৎকার শুনে স্কুলের নাইটগার্ড শাবলু মিয়া ধর্ষণ দৃশ্য মোবাইলফোনে ভিডিও করে। পরে ওই ভিডিও ইন্টারনেটে ছেড়ে দেয়। এ ঘটনার ভিডিওটি ইন্টারনেটে ছড়িয়ে পড়লে গোটা উপজেলায় তোলপাড় শুরু হয়। বলাৎকারের এ ঘটনার পর ওই পরিবারের লোকজন লজ্জায় মুখ খুলতে না চাইলেও তৎপর হয়ে উঠে এলাকাবাসী।
 
স্কুলের ম্যানেজিং কমিটির সহ-সভাপতি তাহের উদ্দিন রনজিৎ সেনাপতি ও শাবলু মিয়াকে আসামি করে গোলাপগঞ্জ মডেল থানায় মামলা দায়ের করেন। শুক্রবার রাতে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে পুলিশ উপজেলা সদরের চৌমুহনী থেকে তাকে গ্রেফতার করে। তবে শাবলুকে এখনো গ্রেফতার করতে পারেনি পুলিশ।
 
এ বিষয়ে তাহের উদ্দিন বলেন, ঘটনার শিকার ছাত্রের পরিবারের লোকজন মানসিকভাবে খুবই বিপর্যস্ত। তাই আমি স্কুলের ম্যানেজিং কমিটির সহ-সভপতি হিসেবে মামলা করেছি। গোলাপগঞ্জ মডেল থানার ওসি একেএম ফজলুল হক শিবলী যুগান্তরকে বলেন, অভিযুক্ত প্রধান শিক্ষক রনজিৎ সেনাপতিকে গ্রেফতার করা হয়েছে। শনিবার তাকে আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে। নাইটগার্ডকে গ্রেফতারের জন্য পুলিশের অভিযান অব্যাহত রয়েছে বলে তিনি জানান।


সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করুনঃ

এডমিন

আমার লিখা এবং প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা সম্পূর্ণ বে আইনি।

0 facebook: