9.02.2016

জেনে নিন সাপ্তাহিক ঈদের দিন মহাপবিত্র জুম্মাবারের ফজিলত সম্পর্কে

রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম তিনি বলেন, পবিত্র জুমুআহ উনার রাতে বা দিনে যে ব্যক্তি ঈমান নিয়ে মারা যায়; মহান আল্লাহ পাক তিনি তাকে কবরের আজাব থেকে মুক্তি দিবেন। সুবহানআল্লাহ।
দলিল তিরমিযী শরীফ ১০৭৮।

যে ব্যক্তি পবিত্র জুম্মার দিনে সুরা কাহফ শরীফ এর প্রথম ১০ আয়াত শরীফ পাঠ করবে, সে দাজ্জালের ফিতনা থেকে নিরাপত্তা লাভ করবে।
দলিলঃ মুসলিম শরীফ।

রাসূলুল্লাহ রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম তিনি বলেনঃ যে ব্যক্তি পবিত্র জুম্মার দিনে সূরা আল-কাহাফ পাঠ করবে, তার জন্য মহান আল্লাহ পাক পবিত্র দুই জুম্মার মাঝে নূর আলোকিত করবেন।
দলিলঃ ইমাম নাসাঈ ও বায়হাকী হাদিসটি বর্ণনা করেন।

জুমুয়ার নামাজ যোহরের তুলনায় একটু দেরীতে পড়া সুন্নতঃ

সুরাইজ ইবনু নুমান রহমাতুল্লাহি আলাইহি -আনাস ইবনু মালিক রদ্বিয়াল্লাহু আনহু থেকে বর্ণিত যে, রাসূল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম জুম্মার সালাত (নামায/নামাজ) আদায় করতেন , যখন সূর্য হেলে যেত।"
দলীলঃ
বুখারী শরীফ, জুমুয়া অধ্যায়, হাদীস ৮৫৮।

রাসুলুল্লাহ সল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম বলেন, ‘তোমাদের দিনগুলোর মধ্যে সর্বোত্তম জুমার দিন। এই দিনে আদমকে আলাইহিস সালাম উনাকে সৃষ্টি করা হয়েছিল; এই দিনেই তিনি বিসাল শরীফ লাভ করেন, এই দিনেই শিঙ্গায় ফুঁ (কেয়ামত) দেওয়া হবে এবং সকল সৃষ্টিকূল ধ্বংস হয়ে যাবে। কাজেই বেশি বেশি করে আমার নামে দরুদ পেশ করো এই দিনে, কারণ তোমাদের পেশকৃত দরুদ আমার কাছে দেখানো হবে। তারা বললেন, ‘ইয়া রাসুলুল্লাহ সল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম, যখন আপনি ধূলার সঙ্গে মিশে যাবেন (নাউযুবিল্লাহ) তখন কিভাবে আমাদের দুরুদ আপনার কাছে পেশ করা হবে?

নবী করীম সল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম তিনি জবাবে বলেন, ‘মহান আল্লাহ পাক মাটিকে নিষেধ করেছেন নবী রাসুল আলাইহিমুস সালাম উনাদের দেহ ভক্ষণ না করতে (সুবহানআল্লাহ)। (আবু দাউদ শরীফঃ ৪/২৭৩)

হযরত আবু হুরায়রা রদ্বিয়াল্লাহু তায়ালা উনার হতে বর্ণিত- রাসুলুল্লাহ সল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম জুমার দিনের ফযিলত সম্পর্কে বলেন, ‘ জুম্মাবারে এমন একটি ক্ষণ আছে যখন একজন মুসলিম, সে নামাজ আদায় করেছে এবং দোয়া করেছে, সেই দোয়া কবুল করা হয়ে থাকে।তিনি (সল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম) উনার হাতের ইশারায় করে বোঝান যে, তা খুব অল্প একটি সময়। (বুখারি শরীফ ও মুসলিম শরীফ)

হে মহান আল্লাহ পাক, পবিত্র জুম্মার এই দিনে আমাদের সকলকে দয়াকরে তুমি ক্ষমা করে দাও। আমিন।


সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করুনঃ

এডমিন

আমার লিখা এবং প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা সম্পূর্ণ বে আইনি।

0 facebook: