9.04.2016

সিলেটে ২০০০ মুসলিমের উপর ইসকনের মামলা মুসলমানরা কি করবে এখন? সিলেট ছাড়বে?


সিলেটে নামাজের সময় ইসকনের গান বাজনাকে কেন্দ্র করে সংঘর্ষের ঘটনায় উল্টো মামলা করেছে ইসকন আসামী করেছে ২০০০ মুসলমানকেমামলা দায়ের করেছে ইসকন নেতা শ্রীপাদ নবদ্বীপ গৌরাঙ্গস্বাভাবিকভাবে এখন সিলেটের ঘরে ঘরে ঢুকে মুসলমানদের গ্রেফতার করবে পুলিশ

উল্লেখ্য এই শ্রীপাদ নবদ্বীপ গৌরাঙ্গ-ই কিন্তু রাগীব আলী ইস্যুতে পঙ্কজের পেছনে কলকাঠি নেড়েছে এবং তারাপুর থেকে ৩০ হাজার মুসলমানকে অবৈধভাবে উচ্ছেদ করছেইসকন চাইছে তারাপুর তাদের হোকশুধু তাই নয়, কাজলশাহ এলাকাতেও তারা ৫ বিঘার মত একটি জমি চাইছেসেখানে মুসলমানদের উচ্ছেদ করতে এখন প্রভাব বিস্তার করতে চাইছে তারা

ইসকন যেভাবে সিলেটে আগ্রাসী ভূমিকা রাখেছে তাতে বোঝা যায় যে সিলেটবাসীকে মুসলিমশূণ্য করাই তাদের এখন মূল টার্গেটসিলেটে শাহজালাল রহমতুল্লাহি আলাইহি উনার যুগের পতন ঘটিয়ে ফের গৌড়গোবিন্দের শাসন চালু করতে চায় তারা

মুসলমানরা তাহলে এখন কি করবে???

মুসলমানদের মূল সমস্যা হচ্ছে এখনো তারা নাকে তেল দিয়ে ঘুমাচ্ছেতারা ভাবছে তাদের এসব বিষয়ে মাথা না ঘামালেও চলবেমাঝখান দিয়ে গৌড়গোবিন্দের অনুসারী ইস্কন অনেকটাই প্রভাব বিস্তার করে ফেলেছেমুসলমানরা ঘুমিয়ে আছে, কিন্তু গৌরগোবিন্দের অনুসারীরা ঘুমিয়ে নেইতারাই উস্কানি দিয়েছে, তারাই মুসলমানদের মার দিয়েছে, আহত করেছে, এরপর আবার ২০০০ জনের বিরুদ্ধে মামলা করেছেএমনকি ঢাকায় এসে সংবাদ সম্মেলন পর্যন্ত করেছেঅথচ মুসলমানরা নিশ্চুপ, তাদের কোন প্রতিক্রিয়া নেই

এই মূহুর্তে মুসলমানদের করণীয়-

১) যারা আহত হয়েছে সরাকারি হাসপাতাল থেকে তাদের ডাক্তারি সার্টিফিকেট উত্তোলন করা
২) ডাক্তারি সার্টিফিকেট নিয়ে ইসকনের বিরুদ্ধে মামলা করাথানায় মামলা না নিলে কোর্টে গিয়ে মামলা করা
৩) কমপক্ষে ১০০০ ইসকন ও তাদের ভক্তদের বিরুদ্ধে মামলা করা
৪) সিলেটে সংবাদ সম্মেলন করা, জনগণকে পুরো ঘটনা জানানো
৫) ঢাকায় এসে সংবাদ সম্মেলন করাহিন্দু সন্ত্রাসীদের কার্যক্রম সম্পর্কে বিস্তারিত বর্ণনা করা
৬) মসজিদগুলোতে জনগণকে জানানো- হিন্দুরা সিলেটে মুসলমানদের উপর নিপীড়ন শুরু করেছে, ফের গৌরগোবিন্দের শাসন চালু করতে চাইছে
৭) আগামী শুক্রবার মসজিদে নামাজের পর মিছিল বের করাদাবি দাওয়া- পুলিশের হামলা, মুসল্লীদের উপর আক্রমণ, ইসকনীদের জঙ্গীপনা এবং মসজিদের সামনে গানবাজনা করে অস্থিতিশীল সহিংস পরিবেশ সৃষ্টির জন্য তাদের নিষিদ্ধ করার দাবিতে
৮) তারাপুরের ৩০ হাজার অধিবাসীকে বের হয়ে আসা উচিত
৯) সিলেটের ইসলামী দল ও সংগঠনগুলোকেও এগিয়ে আসতে হবে


মনে রাখবেন- হিন্দুরা কিন্তু এক হয়ে গেছে মুসলমান তাড়াতেএখন মুসলমানরা যদি এক না হয়, চুপ করে ঘরে ঘুমিয়ে থাকে থাকে তবে কিন্তু নিস্তার নাইসিলেটবাসী সিদ্ধান্ত নিক- সিলেটে কার শাসন চলবে- শাহজালালের নাকি গৌরগোবিন্দের


সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করুনঃ

এডমিন

আমার লিখা এবং প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা সম্পূর্ণ বে আইনি।

0 facebook: