9.20.2016

বাকিরা তো রক্ষা পাচ্ছেনা বরং হিন্দুদের কোপানলে এখন স্বয়ং ছাত্রলীগ নেতারাও


হিন্দুদের কোপানলে পড়েছে ছাত্রলীগ। কোনো কর্মী হিন্দুদের কোন অন্যায়ের প্রতিবাদ করেছে, ব্যস এতটুকু তথ্য পেলেই ছাত্রলীগ থেকে তাকে বহিষ্কার করা হচ্ছে।

সম্প্রতি সাতক্ষীরায় হিন্দু ডাক্তার শম্পা রাণীর অন্যায়ের প্রতিবাদ করায় বহিষ্কার হয়েছে ছাত্রলীগের শ্যামনগর মহসিন কলেজের সভাপতি আব্দুস সবুর এবং ছাত্রলীগের করালোয়া উপজেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক আবুল কালাম আজাদ।

কিছুদিন আগেই এক ফেসবুক স্ট্যাটাসে যার যার ধর্ম তাকে তাকে পালন করারউপদেশ দিয়ে ছাত্রলীগ থেকে বহিষ্কার হয়েছেন ঢাকা মহানগর উত্তরের উপছাত্রী বিষয়ক সম্পাদিকা হৃতিকা রহমান।

তার কিছুদিন আগে, ফেসবুকে হিন্দু ধর্মগ্রন্থ থেকে একটি লাইন তুলে স্ট্যাটাস দেয়ায় বহিষ্কার হয়েছেন ছাত্রলীগের শাবিপ্রবির যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আরিফুল ইসলাম আরিক।

এর আগে গত মার্চে ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের সহ-সম্পাদক ফয়সাল সিদ্দিকী আরাফাতকে এ্কই অভিযোগে বহিষ্কার করেছিলো ছাত্রলীগ কেন্দ্রীয় সংসদ।


আওয়ামলীগের আগের নাম ছিলো আওয়ামী মুসলিম লীগ সেখান থেকে মুসলিমশব্দটা বাদ দেয়া হলো। বর্তমানে আওয়ামীলীগকে যেভাবে হিন্দু নামক ছাকনযন্ত্র দিয়ে ছাকা হচ্ছে তাতে খুব শিঘ্রই আওয়ামীলীগের নতুন নাম হবে- আওয়ামী হিন্দু লীগ, সেখানে থাকবে শুধু হিন্দু ও হিন্দুপ্রেমীরা, বাকি সব বাদ।




সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করুনঃ

এডমিন

আমার লিখা এবং প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা সম্পূর্ণ বে আইনি।

0 facebook: