9.26.2016

স্বাধীন বাংলাদেশ আজ পরিণত হয়েছে আন্তর্জাতিক হিন্দু বাটপার পুনর্বাসন কেন্দ্রে


গতকালকে বাংলানিউজ২৪ এ একটি খবর প্রকাশিত হয়েছে, যার শিরোনামঃ কলকাতার ডাক্তার গৌতম খাস্তগীরের প্রতারণার ফাঁদ বাংলাদেশে খবরে বলা হয়, প্রথমে বন্দরনগরী চট্রগ্রাম, পরে ঢাকায় একটি চিকিৎসা সেবা প্রতিষ্ঠানের মাধ্যমে প্রতারণার জাল বিছিয়েছে এই চিকিৎসক। (https://goo.gl/Mx1qhR, http://archive.is/6yGV1)

বাংলানিউজ এখন এই গৌতম খাস্তগীরকে উল্লেখ করছে প্রতারণার জাল বিছানো চিকিৎসকবলে। কিন্তু বেশিদিন আগে নয়, যখন এই বাংলানিউজই গৌতম খাস্তগীরকে রীতিমতো মহৎ ব্যক্তিবিরাট ডাক্তারহিসেবে তুলে ধরেছিল-

১) পূর্বপুরুষের খাস্তগীর স্কুল হবে কলেজ, স্বপ্ন গৌতমের (https://goo.gl/Z0QFn9, http://archive.is/EFNey)

২) মা-বাবার শূন্য কোল ভরিয়ে সুখ খুঁজে ফেরে ডা. গৌতম খাস্তগীর (https://goo.gl/7RbVjk, http://archive.is/JAndF)

এই গৌতম খাস্তগীরকে নিয়ে চট্টগ্রামের দৈনিক আজাদী পত্রিকার শিরোনাম ছিল-

পটিয়ার সন্তান ভারতের ডা. গৌতম খাস্তগীর ।। নিঃসন্তান নারীর মুখে হাসি ফোটানোই যার ধ্যান-জ্ঞান ।। খাস্তগীর স্কুলকে কলেজ করে দেয়ার ইচ্ছার কথাও জানালেন তিনি (http://archive.is/mB3vj)
এনটিভির শিরোনাম চট্টগ্রামে এসে ডা. গৌতম খাস্তগীরের স্বপ্নপূরণ” (http://archive.is/eHYhK)

অর্থাৎ বুঝতেই পারছেন পাঠকেরা, কলকাতার এই বাটপার গৌতম খাস্তগীরের এদেশে `মহান ব্যক্তিত্বহিসেবে প্রচার করে বাংলাদেশে পুনর্বাসিত হওয়ার ও প্রতারণার জাল বিস্তার করার সমস্ত সুযোগ করে দিয়েছে সরকার ও এদেশের মিডিয়া। এভাবে শুধু গৌতম খাস্তগীর নয়, বরং আন্তর্জাতিক লেভেলে বিতাড়িত অনেক হিন্দু বাটপার এদেশে পুনর্বাসিত হচ্ছে সরকার ও মিডিয়ার হিন্দুতোষণ নীতির সুবিধা নিয়ে। কয়েকমাস আগে সিলেটের কালী প্রদীপ চৌধুরীনামক বাটপারটির কথা অনেকেই শুনেছেন। তাকে নিয়ে বাংলাদেশের মিডিয়াতে ফুলিয়ে ফাঁপিয়ে বলা হয়েছিল-
যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা, সাবেক প্রেসিডেন্ট রিগ্যান, জর্জ বুশ, সিনিয়র বুশ, হিলারি ক্লিনটন এরা তার নিয়মিত ডিনার সঙ্গী।” (http://archive.is/MlKHl)

অথচ আন্তর্জাতিক মিডিয়ায় এই কালী প্রদীপ চৌধুরীকে নিয়ে খবর এসেছে- ২০০০ সালে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে কালী প্রদীপ চৌধুরীKPC Medical Management Inc দেউলিয়া ঘোষিত হয়। সে সময় কেপিসি কর্তৃপক্ষ ক্লিনিকগুলোতে ডাক্তারের বেতন না দিয়ে এবং রোগী ফেলে রেখে পালিয়ে যায়। এতে মারাত্মক ধরনের জটিলতা সৃষ্টি হয়েছিলো। বিষয়টি নিয়ে সে সময় ব্যাপক সমালোচনার সৃষ্টি হয়েছিলো। (https://goo.gl/NjB1bH) এছাড়া ভারতের আসামে কেপিসি অবৈধ মানি লন্ডারিং এর সাথে জড়িত বলে প্রমাণিত। (https://goo.gl/B3a3Ci)

আন্তর্জাতিক লেভেলে দেউলিয়া ঘোষিত এই বাটপার কালী প্রদীপ চৌধুরীকে দিয়ে পূর্বাচলে ১৪২ তলা ভবন নির্মাণ করবে সরকার, পাশে দাঁড়িয়েছে অর্থমন্ত্রী মাল মুহিত। কালী প্রদীপ চৌধুরী দাবি করেছে, সিলেটের ঢাকাদক্ষিণ অঞ্চলে নাকি তার ২২ পুরুষের জমি আছে। আর প্রতিবন্ধী মাল মুহিতও তার কথায় নেচে বলেছে, অবিলম্বে কালী প্রদীপের ২২ পুরুষের জমি ফিরিয়ে দিতে হবে (অর্থাৎ মুসলমানদের উচ্ছেদ করতে হবে)।


অর্থাৎ একাত্তরে ত্রিশ লক্ষ শহীদের রক্তের বিনিময়ে অর্জিত বাংলাদেশ আজ পরিণত হয়েছে আন্তর্জাতিক হিন্দু বাটপার পুনর্বাসন কেন্দ্রে। বিশ্বের যে কোন জায়গায় চুরি করে, মানি লন্ডারিং করে কিংবা প্রতারণা করে এদেশে এসেই হওয়া যাবে বিশ্বখ্যাত চিকিৎসক থেকে শুরু করে রিগ্যান, জর্জ বুশ, সিনিয়র বুশ, হিলারি ক্লিনটনের ডিনার সঙ্গী, যদি শিশ্নের চামড়া অক্ষত থাকে! সরকারকে দোষ দিয়ে লাভ নেই, বাংলাদেশের মুসলমানদের পাপের ফসল এটি। জনগণ কী অস্বীকার করতে পারবে, তাদের চোখের সামনে গত কয়েক বছর ধরে হিন্দুতোষণ হওয়া সত্ত্বেও তারা কোন প্রতিবাদ জানায়নি? তারা কিরণমালা দেখেনি, হিন্দু সংস্কৃতিতে মজেনি? স্পেন হোক আর বাগদাদ হোক, যুগে যুগে মুসলমানদেরকে তাদের গাফিলতির মূল্য পরাধীনতার মধ্য দিয়েই চুকাতে হয়েছে।


সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করুনঃ

এডমিন

আমার লিখা এবং প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা সম্পূর্ণ বে আইনি।

0 facebook: