9.11.2016

সিলেটের নবীগঞ্জে মুসলিম স্কুল ছাত্রীকে যৌন হয়রানীর দায়ে ৬ মাসের জেল হিন্দু স্বাস্থ্যসহকারী সজলের

হবিগঞ্জের নবীগঞ্জ উপজেলার বাউসা প্রাইমারী স্কুলে টিকাদানকালে এক মুসলিম স্কুল ছাত্রীকে যৌন হয়রানী ও ইভটিজিংয়ের অপরাধে ইউপি স্বাস্থ্যসহকারী সজল চক্রবর্তী (৩৩)কে ৬ মাসের কারাদন্ড প্রদান করেছেন ভ্রাম্যমান আদালত। রায় প্রদান করেন ভ্রাম্যমান আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও উপজেলা নির্বাহী অফিসার তাজিনা সারোয়ার। ঘটনাটি ঘটেছে বৃহস্পতিবার সকাল ১১ টায়।

প্রত্যক্ষদর্শী ও পুলিশ সুত্রে জানাযায়, উপজেলার বাউসা ইউনিয়নের বাউসা সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে বৃহস্পতিবার সকালে টিকাদান কার্যক্রম চলছিল। এতে একই গ্রামের   ৯ম শ্রেণীর এক ছাত্রী টিকা গ্রহনের জন্য ওই কেন্দ্রে যায়।

ওই সময় টিকাদানকারী ও ইউপি উপ স্বাস্থ্য সহকারী একই গ্রামের শ্যামল চক্রবর্তীর ছেলে সজল চক্রবর্তী কৌশলে সকল টিকা গ্রহনকারী টিকা দিয়ে বিদায় করে দেয়। সর্ব শেষে টিকা গ্রহনের জন্য ওই স্কুল ছাত্রীকে ডেকে নেয়। এক পর্যায়ে লম্পট সজল চক্রবর্তী স্কুল ছাত্রীকে একা পেয়ে যৌন হয়রানীসহ তার লোলপ দৃষ্টি চরিতার্থ করার চেষ্টা করে। এ সময় ওই স্কুল ছাত্রী চিৎকার দিলে রাস্তার পথচারীসহ আশপাশের লোকজন ছুটে এসে তাকে উদ্ধার করেন। এবং নরপশু সজল চক্রবর্তীকে আটক করে পুলিশে খবর দেয়।


ঘটনার প্রেক্ষিতে নবীগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও ভ্রাম্যমান আদালতের বিচারক তাজিনা সারোয়ার, থানার এস আই আবুল খায়েরসহ একদল পুলিশ নিয়ে ঘটনাস্থলে যান। এ সময় ইভটিজিংয়ের শিকার স্কুল ছাত্রী, ঘটনার প্রত্যক্ষদর্শীর স্বাক্ষী ও জবান বন্দি গ্রহন করেন। বিজ্ঞ আদালত অভিযুক্তকে আত্মপক্ষ সর্মথনের সুযোগ দিলে সজল চক্রবর্তী তার অপকর্মের স্বীকারোক্তি মুলক জবানবন্দি প্রদান করেন। ফলে লম্পট সজল চক্রবর্তীকে দঃবিঃ ৫০৯ ধারায় ৬ মাসের বিনাশ্রম কারাদন্ড প্রদান করা হয়। পরে তাকে থানা হাজতে নিয়ে আসে পুলিশ।


সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করুনঃ

এডমিন

আমার লিখা এবং প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা সম্পূর্ণ বে আইনি।

0 facebook: