9.11.2016

আহত নারী সন্ত্রাসীদের একজন সাবেক সন্ত্রাসী সেনা কর্মকর্তা মেজর জাহিদুলের স্ত্রী বলে ধারণা করছে পুলিশ

রাজধানীর আজিমপুরে পুলিশের অভিযানে আহত তিন নারী সন্ত্রাসীর একজন কয়েকদিন আগে নিহত সন্ত্রাসী সাবেক সেনা কর্মকর্তা (মেজর) জাহিদুল ইসলামের স্ত্রী বলে ধারণা করছে পুলিশ

পুলিশের কাউন্টার টেররিজম ইউনিটের অতিরিক্ত উপ-কমিশনার (এডিসি) ছানোয়ার হোসেন বলেন, 'তিন নারীর মধ্যে একজন সন্ত্রাসী জাহিদের স্ত্রী বলে আমরা ধারণা করছি'

প্রসঙ্গত, গত ২ সেপ্টেম্বর রাতে মিরপুরের রূপনগরের একটি বাসায় পুলিশের অভিযানে জাহিদুল নিহত হয়প্রায় দুই বছর আগে মেজর পদ থেকে ইস্তফা দিয়ে জাহিদ নব্য ভ্রান্ত ধর্মীয় মতবাদি সন্ত্রাসী সংঘটন জেএমবিতে যোগ দিয়েছিল বলে পুলিশ জানায়

শনিবার রাত পৌনে ৮টার দিকে আজিমপুরে বিজিবি'র ২ নম্বর গেটের কাছে একটি বাসায় আইনশৃংখলা বাহিনী অভিযান চালায়

এ সময় পুলিশের সঙ্গে গোলাগুলিতে এক সন্দেহভাজন সন্ত্রাসী নিহত হয়গুলিবিদ্ধসহ আহত তিন নারী সন্ত্রাসীকে আটক করা হয়তাদেরকে ঢাকা মেডিকেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে

এ ঘটনায় পাঁচ পুলিশ সদস্য আহত হয়েছেনতারা হলেন- কনস্টেবল লাবলু জামাল (২০), রামচন্দ্র বিশ্বাস (১৯), শাহজাহান আলী (২৩), মাহতাব উদ্দিন (২১) ও জহির উদ্দিন (২১)তাদেরকেও ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে

এদিকে রাত ১০টার দিকে পুলিশ মহাপরিদর্শক (আইজিপি) একেএম শহীদুল হক আজিমপুরে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন

পরে তিনি সাংবাদিকদের বলেন, 'রূপনগরের ঘটনার পর জাহিদের পরিবার আজিমপুর এলাকায় আত্মগোপন করেছিল বলে আমরা খবর পাচ্ছিলামসেই তথ্যের ভিত্তিতে আজ এই অভিযান চালানো হয়'

আইজিপি বলেন, 'আহত নারীদের মধ্যে জাহিদের স্ত্রী থাকতে পারেওই বাসা থেকে দুটি মেয়ে ও একটি ছেলে শিশুকে উদ্ধার করে পুলিশের ভিকটিম সাপোর্ট সেন্টারে পাঠানো হয়েছেতাদের মধ্যে জাহিদের দুই সন্তান থাকতে পারে'


তিনি আরও বলেন, অভিযানে নিহত যুবক গুলশান হামলাকারী সন্ত্রাসীদের সহযোগী করিম বলে তারা মনে করছেন


সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করুনঃ

এডমিন

আমার লিখা এবং প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা সম্পূর্ণ বে আইনি।

0 facebook: