3.12.2017

নরেন্দ্র মোদী আসবে বলে জোর করে মুসলিম নারিকে বোরকা খোলে বেপর্দা হতে বাধ্য করা হলো

বাংলাদেশে যত ভারতীয় জারজ সন্তানরা আছে তাদের প্রতি প্রশ্ন রাখছি? নরেন্দ্র মোদী আসবে বলে মুসলিম নারিকে জোর করে বোরকা খোলানো হলো ভাদারা এখন চুপ কেন? এখন মানবাধিকার লঙ্ঘন হয় না?

গত বুধবার গুজরাটে একটি সভায় উপস্থিত থাকতে এক মুসলিম মহিলাকে জোর করে বোরকা খোলানো হলোসেই সভাতে উপস্থিত ছিলো ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীআন্তর্জাতিক নারী দিবসে সফল মহিলাদের সম্মানিত করতেই এই সভার আয়োজন করা হয়েছিলগান্ধিনগরের এই সভায় উপস্থিত ছিলেন প্রতিনিধি দলের সদস্য সাহারবান সাইদালাভি, যিনি কেরলের বাসিন্দা

উইমেন্স কমিশন মেম্বার এর সদস্য নুরবিনা রসিদ জানান যে, সভায় প্রবেশ করার আগে ওই মুসলিম মহিলাকে রক্ষীরা জোর করে হিজাব খুলে ফেলতে বলে।  দিন সভায় উপস্থিত ছিলেন প্রায় ৬০০০ মানুষসাহারবান সাইদালাভি বিগত ২০ বছরে কেরলের পঞ্চায়েত নেতা থাকার দরুণ এই সভায় অতিথি হনপ্রতিনিধিদলের অন্য সদস্যরা ব্যাপারটিতে হস্তক্ষেপ করলে এক ঘন্টা পর উনাকে উনার হিজাব(বোরকা) ফিরিয়ে দেওয়া হয়

নুরবিনা রসিদ জানান, “এটি খুবই অপমানজনক ও অবাঞ্ছিতনারী দিবসের দিন সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের এক নারীর সঙ্গে এসব হচ্ছেওই নিরাপত্তা রক্ষীর বিরুদ্ধে মানবাধিকার লঙ্ঘন করারও অভিযোগ তোলেন রসিদএবং এই ঘটনার বিরুদ্ধে যথাযথ ব্যবস্থারও দাবি করেছেনযদিও সবথেকে উচ্চপদস্থ পুলিশ অফিসার এই অভিযোগের কথা স্বীকার করেনিপুলিশের দাবি নিরাপত্তার কথা মাথায় রেখেই ঐ মহিলার হিজাব খুলতে বলা হয়েছিল তারা জানতে পেরেছে কারণ সেই মুসলিম মহিলার মুখ পুরোপুরি পর্দায় ঢাকা ছিল


সুত্রঃ http://archive.is/mAdkf


সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করুনঃ

এডমিন

আমার লিখা এবং প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা সম্পূর্ণ বে আইনি।

0 facebook: