5.02.2017

নিচুবর্ণের হিন্দুদের মাথায় তুলে আজকে যারা পস্থাচ্ছেন আওয়ামীলীগের

হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদের নেতা রানা দাশগুপ্ত যখন শেখ হাসিনার বেয়াইয়ের বিরোধীতা শুরু করলো, তখন তার সম্পর্কে দৈনিক জনকণ্ঠে স্বদেশ রায় বলেছিলো-

রানা দাশগুপ্তের অসুবিধা সহজে বোঝা যায় তিনি কুয়োর ব্যাঙ, সাগরে এসে পড়েছেন আসলে চট্টগ্রাম জজকোর্টের সাধারণ একজন উকিল হঠাৎ করে শেখ হাসিনার বদান্যতায় জাতীয় রাজনীতি বা জাতীয় ফোরামে চলে এসেছেন এখন তাল সামলাতে পারছেন না (http://bit.ly/2qFtbtY)

অর্থাত রানা দাশগুপ্ত ছিলো চট্টগ্রাম জজ কোর্টের দুই পয়সার একটা উকিল তাকে আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইবুনালের রাষ্ট্রপক্ষের প্রসিকিউটার বানান শেখ হাসিনা সোজা ভাষায় নিম্নবর্ণের হিন্দুটিকে মাথায় তুলেছিলেন শেখ হাসিনা, সেই নিম্নবর্ণের হিন্দুটি এখন যায়গায় যায়গায় আওয়ামীলীগকে পিটুনি দিচ্ছে

ঠিক তেমনি বর্তমান প্রধান বিচারপতি এসকে সিনহাও একই কাজ করছে এসকে সিনহা হচ্ছে মৌলভীবাজারের মনিপুর বিষ্ণুপ্রিয়া সম্প্রদায়ের হিন্দু এই হিন্দু জনগোষ্ঠী খুবই নিচু বর্ণের হয় চা-বাগানগুলোতে খুবই স্বল্পমূল্যে কাজ করে এরা এসকে সিনহার বাবাও ছিলো রাগিব আলির চাবাগানের শ্রমিক সেই এসকে সিনহা প্রথম সুপ্রীম কোর্টের একজন সাধারণ উকিল হয় এরপর তাকে আওয়ামীলীগই তুলতে তুলতে প্রধান বিচারপতি বানিয়ে দেয় সুপ্রীম কোর্ট এলাকায় সবাই জানে, যে কয়জন বিচারপতি ঘুষটুশ খেতো, তাদের মধ্যে কুখ্যাত ছিলো এই এসকে সিনহা টাকা ছাড়া সে কোন মামলারই ফয়সালা করতো না শেখ হাসিনাই অত্যাধিক হিন্দুপ্রীতির কারণে দুইজন সিনিয়র বিচারপতিকে টপকিয়ে নিম্নবর্ণের হিন্দু এসকে সিনহাকে প্রধানবিচারপতি করে দেন

প্রধান বিচারপতির পদে বসেই রানা দাশগুপ্তের মত ভোল পাল্টে ফেলে নম:শুদ্র এসকে সিনহা আওয়ামী লবিং টপকিয়ে নিজেই মার্কিন লবিতে কাজ শুরু করে বর্তমানে আওয়ামীলীগ সরকারের সাথে নমশুদ্র এসকে সিনহার দ্বন্দ্ব চরমে আইনমন্ত্রী বেশ কয়েকবার নমঃশুদ্র এসকে সিনহার বিরুদ্ধে বলে ফেলেছেন আজকে যুগান্তরে দেখলাম বগুড়ায় আওয়ামীপন্থী আইনজীবিদের বিরোধীতার কারণে নমশুদ্র এসকে সিনহার সাথে বার সমিতির সভা ভন্ডুল হয়ে গেছে অর্থাত এতদিন উপর পর্যায়ে ছিলো আওয়ামীলীগ-নমশুদ্র সিনহা বিরোধীতা, এখন তা ফিল্ড পর্যায়ে পৌছে গেছে

তবে সব ভুল ঐ আওয়ামলীগেরই, আরো সোজা ভাষায় বলতে আওয়ামী প্রধান শেখ হাসিনার একটি বিশ্বাসের তিনি মুসলমানদের বিশ্বাস করেন না, কিন্তু হিন্দুতে বিশ্বাস করেন এ সম্পর্কে শেখ হাসিনার সাবেক এপিএস মতিয়ুর রহমান রেন্টুর লেখা, আমার ফাঁসি চাই বইতে শেখ হাসিনার বক্তব্য উল্লেখযোগ্য-মুসলমানরা বেঈমান ও অকৃতজ্ঞ হিন্দুরা ঈমানদার ও কৃতজ্ঞ আমি (শেখ হাসিনা) হিন্দুদের উপর ভরসা করতে পারি, বিশ্বাস রাখতে পারি কিন্তু মুসলমানদের বিশ্বাস করা যায় না ভরসা করা যায় না

অর্থাত শেখ হাসিনা মুসলমানদের উপর বিশ্বাস করতে পারেন না, ভরসা রাখতে পারেন না কিন্তু হিন্দুর উপরে ভরসা রাখতে পারেন, বিশ্বাস রাখতে পারে তবে সাম্প্রতিক তিনি হিন্দুদের মধ্যে বেছে বেছে নিচু জাতদের উপর বেশি ভরসা রাখতে পারছেন যার ফলও তিনি পাচ্ছেন হাড়ে হাড়ে এ সম্পর্কে ফার্সীতে একটা প্রবাদ পড়েছিলাম, যার অনুবাদ অনেকটা এরকম- কম জাতের লোকদের গুরুত্বপূর্ণ পদ দিয়ো না কারণ তারা গুরুত্বপূর্ণ পদ পেলে মানী লোকের মানহানী করবে

সেটাই দেখা যাচ্ছে- নিচুজাতের এসকে সিনহা প্রধানবিচারপতি পদে বসে শুধু আওয়ামলীগের সাথেই বিশ্বাসঘাতকতা করেনি বরং সুপ্রীম কোর্টের সামনে মূর্তি বসিয়ে পুরো জাতির মানহানী করেছে


সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করুনঃ

এডমিন

আমার লিখা এবং প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা সম্পূর্ণ বে আইনি।

0 facebook: