7.05.2017

মুসলমানদের দানব, ইসলাম ধর্মকে পিচাশের ধর্ম প্রকাশ্যে বলে বেড়াচ্ছে উগ্রহিন্দু গোবিন্দ প্রামাণিক

গোবিন্দ চন্দ্র প্রামাণিক নামের এই লোকটি নিজেকে হিন্দু মহাজোট নামক একটি সংগঠনের নেতা বলে দাবি করেপেশায় ঢাকা জজ কোর্টের উকিল শুধু তাই নয় ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির খুব কাছের লোক বলে বুক ফুলিয়ে পবিত্র দ্বিন ইসলাম কে কটূক্তি করে নির্দ্বিধায়। সে প্রতিনিয়ত স্ট্যাটাসে পবিত্র দ্বিন ইসলাম ও মুসলমানদের গালিগালাজ করেযাচ্ছে আজকে সে দুইটি স্ট্যাটাসে মুসলমানদের `দানবএবং পবিত্র দ্বিন ইসলাম-ধর্মকে `পিশাচ দানবের ধর্মবলে উল্লেখ করেছে এবং হিন্দুদের উস্কানি দিয়েছে মুসলমানদের বিরুদ্ধে যুদ্ধ করার জন্য (সূত্রঃ https://goo.gl/PcQuJF, https://goo.gl/xeRzfP, আর্কাইভ: http://archive.is/PNz3C, http://archive.is/6cSPq)

তার ইসলামবিদ্বেষী উস্কানিমূলক সম্পূর্ণ লিখাটি হলোঃ- ১২০০ সাল পর্যন্ত বাংলা ভূখন্ডে ১০০% হিন্দু ছিলোমুসলিম আগ্রাসন এর পর থেকে কমতে কমতে আজ ৮-৯% ঠেকেছিআমাদের পূর্ব পুরুষরা রাক্ষস, খোক্কস, দৈত্য দানবের বহু গল্প তৈরী করেছিলেন; কিভাবে দৈত্য দানবদের হাত থকে সমাজ ও ধর্মকে রক্ষা করা যায় তার কল্পিত সম্ভাব্য উপায় হিসেবেকিন্তু হিন্দু সমাজ তা শুধু শিশুদের মনোরঞ্জনেরর জন্যই ব্যবহার করেছেদৈত্য দানব বধের সংকল্প তৈরির জন্য কালীপুজা দূর্গাপুজার উদ্ভব হলকিন্তু আজ তা শুধুই উৎসবগীতায় ভগবান অর্জুনকে তার হারানো রাজ্য পুনরুদ্ধার করতে বলে বললেন, তুমি যুদ্ধ কর, বেঁচে থাকলে পৃথবী ভোগ করবে, আর মারা গেলে স্বর্গ লাভ করবে, আমরা কৃষ্ণের নাম কীর্তন করি কিন্তু কৃষ্ণের হৃত ররাজ্য পুনরুদ্ধারের নির্দেশ মানি নাআজ দৈত্য- দানবরা আমাদের ৯০% জনগণকে খেয়ে ফেললোরাজকুমারীও উদ্ধার হল না, রাজ্যও উদ্ধার হল নাএরপর এদেশে কত মহাপুরুষ, অবতার পুরুষের জন্ম হলকিন্তু হিন্দু সমাজকে, ধর্মকে কেউ রক্ষা করতে পারলো না, পারলো না হারানো হিন্দু সাম্রাজ্য পুনরুদ্ধার করতেআমাদের ধর্মগুরুরা সর্বদাই নিজ নিজ গুরুকে ভগবান, পুরুষোত্তম, পূর্ণব্রহ্ম বানাতে আর পরকাল নামক একটি কল্পিত সাম্রাজ্য দখলের চেষ্টায় ব্যস্ততাদের শিষ্যত্ব গ্রহণ করে আমরাও আমাদের ইহজাগতিক সব বাদ দিয়ে পরকাল নিয়ে ব্যস্ত হয়ে পরেছিদানবরা মেয়ে বউ নিয়ে যায় যাক, রাষ্ট্রটি তো গেছেই, টুকিটাকি সম্পত্তি যা আছে তাও নিয়ে যাক কোন অসুবিধা নাই; কিন্তু বৈকুণ্ঠধামের বা স্বর্গের কল্পিত আবাসটি যেন হাত ছাড়া না হয়ে সব সময় সেই প্রচেষ্টাযদি এদেশ থেকে পিশাচ দানব ধর্ম গ্রহন করে হিন্দুই নিশ্বেষ হয়ে যায়, তাহলে কল্পিত পরকাল আমাদের কোন কাজে আসবে? এই বাংলা ভুখন্ডেই এক ডজনের উপর মহাপুরুষের, অবতার পুরুষের, পূর্ণ ব্রহ্ম, অংশাবতারের আবির্ভাব হল, তাদের তপস্যা, জীবোদ্ধারের প্রচেষ্টা ব্যর্থ হয়ে যাবে না?"

*****************************************************

তার এই ইসলামবিদ্বেষী কাজের পরিপ্রেক্ষিতে মুসলমানদের উপর ফরজ হচ্ছে যার যার অবস্থান থেকে তাক্কত অনুযায়ী প্রতিবাদ করা। যেমন যারা মুসলিম সাংবাদিক তারা প্রেস কনফারেন্স করা, যারা মুসলিম উকিল তারা ইসলাম অবমাননার মামলা করা, যারা প্রশাসনে আছেন সেইসব মুসলিম ভাইদের উপর ফরজ হচ্ছে মামলা হলে বা তার বিরুদ্বে প্রতিবাদ হলে সেগুলোকে সাপোর্ট দেওয়া আর যারা মুসলিম চাকুরীজীবী তারা টাকা পয়সা দিয়ে তাদের সাহায্য করা যারা অনলাইনে অফলাইনে লিখালিখি করে এবং মানব্বন্ধন সেমিনার করে প্রতিবাদ করে।

আর যারা কোন কিছুই করার ক্ষমতা রাখেন না তাদের উপর ফরজ হচ্ছে তারা তার মোবাইল ফোনে সুন্দর করে জিজ্ঞেস করা যে মুসলমান কিভাবে দানব হয় এর ব্যখা দিতে বলা। তার মোবাইল নাম্বার ০১৯১১৩৬২৩৮১ কল করে জিজ্ঞেস করুন সে কোন সাহসে ৯৫% মুসলিমদের এই দেশে মুসলমান এবং ইসলাম নিয়ে কটূক্তি করার সাহস করে?


সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করুনঃ

এডমিন

আমার লিখা এবং প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা সম্পূর্ণ বে আইনি।

0 facebook: