8.03.2017

বাল্যবিবাহ করলে শরীরিক সমস্যা হয় নামক প্রোপাগান্ডার পোষ্টমরটেম সবাই পড়ুন

অল্প বয়সে বিবাহ করলে নাকি শরীরিক সমস্যা হয়, এমন উদ্ভট কথা বলে মানুষকে বাল্যবিবাহ থেকে প্রতিহত করা হচ্ছে নাউযুবিল্লাহ তারা বিভিন্ন মেডিক্যাল সাইন্সের অযুহাত দ্বারা মানুষকে ধোঁকা দেয়ার চেষ্টা করছে অথচ সঠিক মেডিক্যাল সাইন্স তার উল্টোটা বলছে

আসুন মেডিক্যাল সাইন্স ও বিভিন্ন দেশের পরিসংখ্যান দ্বারা বিষয়টা যাচাই করার চেষ্টা করি।

মেডিক্যাল সাইন্স মতে একটা মেয়ের বয়ঃসন্ধিকাল শুরু হয় ৮ বছর থেকে শুরু করে ১৪ বছরের মধ্যেও হতে পারে। প্রকৃত পক্ষে এর কম বয়সেও অর্থাৎ ৫ বছর বয়সেও মেয়েদের গর্ভধারন ও সন্তান প্রসবের দৃষ্টান্তও পৃথিবীতে আছে। দেখুন উইকিপিডিয়াতে https://en.wikipedia.org/wiki/Lina_Medina

বয়ঃসন্ধি ছেলেদের ক্ষেত্রে সাধারণত ৯ থেকে ১৬ বছর বয়সের মধ্যে এবং মেয়েদের ক্ষেত্রে ৮ থেকে ১৪ বছর বয়সের মধ্যে ঘটে (http://bit.ly/2woMbje) অর্থাৎ এ বয়সে কেউ আর শিশু থাকে না। এ সময় তার পক্ষে সন্তান ধারনও সম্ভব। এই বয়সে বা এর চাইতে কম বয়সে অসংখ্য মেয়ে মা হয়েছে, সন্তানকে দুগ্ধ পান করিয়েছে। পরিশেষে মা ও সন্তান উভয়ে সুস্থ জীবন যাপন করেছে।

২৭ সেপ্টেম্বর, ১৯৩৮ সালে পৌরেঞ্জ পেরুতে লিনা মেডিনা নামক ৫ বছর ৭ মাস ২১ দিন বয়সের এক মেয়ে সন্তানের জন্ম দিয়েছে। উইকিপিডিয়ায় আছে, “লিনা মেদিনা ৫ বছর ৭ মাস ২১ দিন বয়সে সন্তানের জন্ম দেন। তিনি ছিলেন চিকিৎসা-ইতিহাসের সর্বকনিষ্টা মা।। (http://en.wikipedia.org/wiki/Lina_Medina)

এখানেই শেষ নয়, নিম্নোক্ত তালিকার দিকে যদি দৃষ্টিপাত করেন তবে পেয়ে যাবেন এক অভূতপূর্ব ঘটনার চিত্র। ৫ থেকে শুরু করে ১০ বছর বয়স পর্যন্ত প্রায় ১০০ মেয়ের তালিকা আছে যারা ঐ বয়সে মা হয়েছে। http://archive.is/dsRil

কই কোন সমস্যা তো হলো না? তবে কেন মুসলমানদের ক্ষেত্রে বাল্যবিবাহ বিরোধী এত কথা বার্তা?

সমগ্র পৃথিবীব্যাপী তথা কথিত অপ্রাপ্ত বয়ষ্ক নামধারীরা মেয়েরা প্রেগনেন্ট হচ্ছে, অবৈধ বাচ্চা জন্ম দিচ্ছে, কেউবা এব্রোশন করে ফেলছে। সুশীল নামক কুশীলরা এসব বাচ্চাদের স্কুলে পাঠ্য বইতে এই বয়সে শারীরিক সম্র্পক যদি কেউ করেই ফেলে তাদের কি করতে হবে, কি ব্যাবহার করতে হবে, কি খেতে হবে সে শিক্ষা দেয়া হয়েছে কিন্তু বাল্য বিবাহের মাধ্যমে চরিত্র রক্ষার যে পথ সেটা বন্ধ করে দেয়ার চেষ্টা কিন্তু করেই যাচ্ছে।

এসব সুশীল সমাজের ছত্রছায়ায় ছেলে মেয়েরা অল্প বয়সে নোংরামী বদমাইশি করতে পারবে তবে অপকর্ম করার আগে কন্ডম রাখার পরামর্শ, অথবা মেয়েদের ট্যবলেট খাওয়ার পরামর্শ, নিতান্তই পেটে বাচ্চা এসে গেলে এব্রোশনের পরামর্শ সবই ফ্রিতে পাওয়া যায় কিন্তু বাল্য বিবাহের মাধ্যমে বৈধ সর্ম্পক সেটা যেন তাদের চোখের বালি।


আকাম কুকামে নারীবাদী বদমাশগুলোর কোন মাথা ব্যাথা নাই। মাথা ব্যাথা শুরু হয় শরীয়ত সম্মতভাবে বাল্য বিবাহ দিতে গেলে।


সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করুনঃ

এডমিন

আমার লিখা এবং প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা সম্পূর্ণ বে আইনি।

0 facebook: