11.14.2017

রংপুরের সেই তোলপাড় করা ভিডিও যেখানে পুলিশ নিজেই বলছে আগুন হিন্দুরাই লাগিয়েছে

রংপুরের পুরো ঘটনাটি যে মুসলমানদেরকে ফাসানোর উদ্দেশ্যে হিন্দু মালউনদের সাজানো নাটক তা এই ভিডিওটির মাধ্যমে প্রমানিত হল! হিন্দুদের বাড়িতে আগুন লাগার পরের প্রথম মুহুর্তের ভিডিওটি দেখুন ও শুনুনঃ- স্পষ্ট শোনা যাচ্ছে- আগুন ধরার পরের মুহুর্তে প্রত্যক্ষদর্শী ও পুলিশ নিজেই বলছে” “হিন্দুরা নিজ থেকে আগুন লাগাইছে নিজ থেকে আগুন লাগায় হিন্দুরা প্রত্যক্ষদর্শী ভূমিকায় ছিলো পুলিশ
এ ভিডিওটি থেকে আরেকটি বিষয় নিশ্চিতঃ- এতদিন হলুদ মিডিয়ায় প্রচার হচ্ছিলো- হিন্দু বাড়িতে আগুন লাগানোর সময় পুলিশের গুলিতে মুসলমানরা হতাহত হয়েছে, এটা সম্পূর্ণ ভুয়া কথা

আপনি যদি কানে হেডফোন লাগিয়ে উচ্চ শব্দে এই ভিডিওটি কয়েকবার দেখেন/শোনেন, তাহলে অনায়াসে বুঝতে পারবেন, রংপুরে উগ্রপন্থী হিন্দুদের সাম্প্রদায়িক হিংসার কারনে ঠান্ডা মাথায় ৬ জন নিরীহ মুসলিমকে হিন্দুরা তাদের গুপ্ত আগ্নেয়াস্ত্র দ্বারা গুলি করে হত্যা করেছে, এবং হত্যার স্থান থেকে সরে এসে নিজেদের ফাকা ছনের ছাগলের ঘরে নিজেরাই আগুন লাগিয়ে দিয়েছে, এই সর্বমোট ঘটনাই ঠান্ডা মাথায় দীর্ঘদিনের সু.পরিকল্পিত আমার কথায় যদি কারো সন্দেহ থাকে তাহলে দয়া করে কানে হেড ফোন দিয়ে উচ্চ আওয়াজে এই ভিডিও টা ততক্ষন দেখতে থাকুন যতক্ষন না বুঝতে পারেন

আরেকটি জিনিস হচ্ছে, জ্ঞানি মাত্রই মনে এই প্রশ্নের উদয় হবে যে, এত ঘর থাকতে খড়ের ঘরে আগুন কেন? তার সহজ হিসাব এটায় আগুন দিলে নিজেদের তেমন ক্ষতি হবে না কিন্তু ফাঁসানো যাবে মুসলিমদের।

আফসোসঃ বাংলাদেশে মুসলমানদের জন্যে অপেক্ষা করছে ভয়ঙ্কর ভবিষ্যৎ আর এর মূল কারন হচ্ছে আমার পাশের বাড়ির হিন্দুটি খারাপ নয় নামক উদ্ভট চিন্তা মনের মধ্যে লালন করা। একিই চিন্তা রংপুরের লোকেরা করতো বলেই আজ ২০ গ্রামের পুরুষ ভিটেমাটি ছাড়া।


সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করুনঃ

এডমিন

আমার লিখা এবং প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা সম্পূর্ণ বে আইনি।

0 facebook: