11.15.2017

ইহুদি নাসারাদের এজেন্ট কওমী মুভ ফাউণ্ডেশন থেকে কি আপনারা সাবধান আছেন?

আজ থেকে অনেকদিন আগে অর্থাৎ গতো ফেব্রুয়ারি মাসের ১৫ তারিখে একটি পোষ্টে(https://goo.gl/P7i7Qj) ছবি সহ সামান্য কিছু লিখা এবং কুরআন শরীফ, হাদিস শরীফ এর দলিল দিয়ে সাবধান করার পরেও কওমী মুভ ফাউণ্ডেশন তাদের কার্যক্রম অব্যাহত রেখেছে যা মুসলিম সমাজ এবং শরীয়তের জন্য চরম হুমকি বলে মনে করছি।

কওমী মুভ ফাউণ্ডেশন সম্পর্কে জানা থাকা এবং জেনে সাবধান হওয়া প্রয়োজন আছে বলে মনে করেই আপনাদের সাথে এই পোষ্ট শেয়ার করছি। কীভাবে তারা কওমি ছাত্রদেরকে কাছে টেনে তাদেরকে ইসলামের ব্যপারে ভ্রান্ত আক্বিদা গুলোর বীজ বপন করে তা জানুন এই লেখাটি তাদের উদ্দেশ্য যারা জানতে চান "মুভ ফাউন্ডেশন" যে কতো ভয়ংকর তাদের সম্পর্কে তথ্য প্রমান সহকারে পেশ করলাম

তাদের লক্ষ্য হচ্ছে কওমী মাদ্রাসা ও তার ছাত্রছাত্রীবৃন্দ!

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে সম্প্রতি বহুল আলোচিত বিষয় হচ্ছে "মুভ ফাউন্ডেশন"মুভ ফাউন্ডেশন এর কবলে অনেক মাদ্রাসা পড়ুয়া শিক্ষার্থী আক্রান্ত! হচ্ছে। পোষাক-পরিচ্ছেদ ও আচার-আচরণে বিশাল পরিবর্তন! এ নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে আতংক ও উৎকন্ঠার শেষ নাই সত্যতা ও মুভ ফাউন্ডেশন নিয়ে জানার কৌতূহলের অন্ত নেই

জার্মানির (ক্রুসেডার) খৃষ্ঠান পরিচালিত ও জাতি সংঘের ইউনিসেফ সংস্থার অর্থ সহযোগিতায় চালিত "মুভ ফাউন্ডেশন" নিয়ে অনুসন্ধানী রিপোর্ট খুঁজতে গিয়ে বেরিয়ে এলো এক ভয়ানক তথ্যযা রীতিমত গা' শিউরে উঠার মত কওমী মাদ্রাসা ও কওমী শিক্ষার্থীদের নিয়ে "মুভ ফাউন্ডেশন "এর বর্তমান পথচলা

মুভ ফাউন্ডেশন এর পরিচিতি ও লক্ষ্যার্থ নিচে তুলে ধরা হলোঃ-
"Move Foundation" হচ্ছে জার্মান খৃষ্টান পরিচালিত তরুণদের নিয়ে চালিত বিশ্বব্যাপী একটি সামাজিক সংস্থা যার শাখা প্রশাখা বিশ্বের প্রায় প্রতিটি দেশে বিস্তৃত রয়েছে বিভিন্ন দেশে বিভিন্ন উদ্দেশ্যেকে কেন্দ্রকরে গড়ে উঠেছে এই সামাজিক সংস্থাতবে বাংলাদেশে গড়ে উঠেছে এক ভয়ানক লক্ষ্য উদ্দেশ্য নিয়ে!

২০১৩ সালে ঢাকায় এই ফাউন্ডেশন গড়ে উঠে সূচনা থেকেই বাংলাদেশস্থ জার্মান দূতাবাসের ব্যবস্থাপনায় এই ফাউন্ডেশন বেড়ে উঠেকালের পরিক্রমায় তার লক্ষ্য উদ্দেশ্য ও কার্যক্রম পরিষ্কার হতে থাকেতাদের প্রধান দু'টি উদ্দেশ্যঃ-
১. কওমী মাদ্রাসার ছাত্রদের আধুনিক করা
২.কওমী শিক্ষা সিলেবাস সংস্কার করা

মুভ ফাউন্ডেশন এর সাইট ভিজিট করে জানা যায় যে, তাদের ফাউন্ডেশন এর মূল বা স্পেশাল লক্ষ্যই হচ্ছে উপরোক্ত দু'টি বিষয়বিস্তারিত জানতে তাদের ওয়েবসাইট দেখুন- (www.move-foundation.com)

২০১৩ সালে গড়ে উঠা এই সামাজিক সংগঠন তাদের মূল লক্ষ্যে ধীরে ধীরে পৌঁছতে থাকেঢাকার কিছু নামিদামি কওমী ছাত্রদেরকে সংগ্রহ করে তাদের নিয়ে প্রথম ২০১৫ সালে অনানুষ্ঠানিক যাত্রা শুরু করেসর্বশেষ, হাতের কবজায় চলে এলে কওমী মাদ্রাসার প্রায় ৫০+ ছাত্র ও ভার্সিটি পড়ুয়া ৬০+ ছেলে-মেয়ে নিয়ে জঙ্গিবিরোধী প্রশিক্ষণ দেয়

দু'মাস ব্যাপী এই প্রশিক্ষণে কওমী মাদ্রাসার ছেলেরা মেয়েদের পাশাপাশি বসে বেপর্দা ও গতানুগতিক ধর্মিয় অনুশাসন এর উর্ধ্বে উঠে কোর্স সমাপ্ত করেসে কোর্স ও ক্লাস দানের বিস্তারিত তথ্য জানতে নিচের লিংক ক্লিক করুনঃ- (http://bit.ly/2yJFoT3)

খৃষ্টান পরিচালিত মুভ ফাউন্ডেশন এর দু'মাস ব্যাপী প্রশিক্ষণ শেষে আনুষ্ঠানিকভাবে কওমী ছাত্রদের হাতে জঙ্গী বিরোধী ও সামাজিকভাবে আধুনিকায়নের উপর বিশেষত্ব লাভের জন্য "সার্টিফিকেট" তুলে দেওয়া হয় অনুষ্ঠানটি ঢাকার ইঞ্জিনিয়ার ইনষ্টিটিউট এ অনুষ্ঠিত হয়

মজার ব্যাপার হলো, সেই অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি ছিলেন ঢাকাস্থ জার্মানদূত এবং বিশেষ অতিথি ছিলেন আওয়ামিলীগের যুগ্নসাধারণ সম্পাদক মাহবুবুল আলম হানিফ সাহেব আর কওমীদের মধ্যে বিশেষ অতিথি ছিলেন মুফতি ফয়জুল্লাহবিস্তারিত জানতে ও দেখতে নিচের লিংকে ক্লিক করুনঃ- (goo.gl/IMHUcX)

এখানেই কওমী মাদ্রাসা নিয়ে খৃষ্টান পরিচালিত মুভ ফাউন্ডেশন এর দৌরাত্ম্য শেষ হয়নি তারপর, তারা শুরু করে বিভিন্ন কওমী মাদ্রাসায় ভ্রমণ সরল ও অজ্ঞাত মুহতামিম সাহেবদের বুঝিয়ে শুনিয়ে মাদ্রাসার ছাত্রদের মুভ ফাউন্ডেশন এর কার্যক্রমের দিকে ধাবিত করে এবং শিক্ষা সংস্কারের নামে অপপ্রচার ও বুলি শিখিয়ে দিতে থাকে

তাদের ওয়েবসাইটে একটা ভিডিওতে দেখা যায়, ঢাকাস্থ একটি কওমী মাদ্রাসার পড়াশোনার চিত্র রয়েছে অতঃপর একজন ছাত্রের জবানবন্দি নিয়েছেসে ছাত্র বলতেছে- "আমরা আসলে এখানে কেবল কোরান-হাদিস পড়ি এর বাহিরে কিছু জানিনা আমরা কোরান-হাদিসের পাশাপাশি বিজ্ঞান, আইন, সাংবাদিকতা ইত্যাদি জানতে/পড়তে চাই" বিস্তারিত ভিডিও দেখতে নিচের লিংকে ক্লিক করুনঃ-
(https://youtu.be/gEQbpj76yS)

কওমী ছাত্রদের নিয়ে মুভ ফাউন্ডেশন এর প্রশিক্ষণ কোর্স এর ভিডিও দেখতে নিচের লিংকে ক্লিক করুন - (http://bit.ly/2hs2xlH)

এছাড়া, তাদের ওয়েবসাইটের শতকারা ৮০% নিউজ রয়েছে কওমি মাদ্রাসা নিয়ে একটি সংবাদে দেখা যায়, তারা কওমী ছাত্রদেরকে তুচ্ছতাচ্ছিল্য করে ও সমাজের অভয়ারণ্য হিসেবে তুলে ধরেবিস্তারিত নিচের লিংকে ক্লিক করেনঃ- (http://bit.ly/2iWju8n) (http://archive.is/kjfFh)

কি বুঝলেন??

কওমী মাদ্রাসায় এভাবে এঞ্জিয় সংস্থাগুলো ঢুকে পড়লে মুফতি হওয়ার পরেও মাসুদ কেন নাস্তিক হবে না? আলিম হওয়ার পরেও নেহাল কেন বেহাল হবে না?

পরিশেষে একটি কথাই বলতে চাই মেয়েগুলো হয়তো ইসলাম, পর্দা, জিনা এগুলো সম্পর্কে সম্পূর্ণ অবগতা না বা জানেনা কিন্তু এই খাটাস দেওহিন্দু কওমিরা কি এগুলো সম্পর্কে অবগত না?

কালামুল্লাহ শরীফ এবং সহিহ হাদিস শরীফ এর হুকুম অনুসারে ১৪ জন ব্যতিত নারী পুরুষ উভয়ের জন্য পর্দার খিলাফ করে দেখা করা, বিনা প্রয়োজনে কথা বলা, প্রেম ভালোবাসা, রিলেশন তৈরি করা, কাজ কাম করা হারাম হওয়ার পরেও কিসের ভিত্তিতে এইসব হারাম কাজ করে নিজেদের মুসলমান দাবি করছে?

⇨⇨ দলিলঃ (পবিত্র সুরা নূর শরিফঃ আয়াত শরিফঃ ৩০, ৩১ ও সূরা আহযাব শরিফঃ আয়াত শরিফঃ ৩২, ৩৩, ৫৩, ৫৯ ও (সহীহ বুখারী শরীফ হাদীস শরীফঃ ৪৮৫০, আবু দাউদ শরীফ ২/৪৫৭, মুসতাদরাকে হাকীম ২/১০৪, তিরমিযী শরীফ, আহমাদ শরীফ, ইবনে মাজাহ শরীফ তাফসীরে ইবনে কাসীর ৩/৮০৪; আহকামুল কুরআন, জাসসাস ৩/৩৬৯; সহীহ বুখারী শরীফঃ হাদীস শরীফ ৩২৪, ৪৭৫৭, ১৮৩৮, ফাতহুল বারী ২/৫০৫, ৮/৩৪৭; উমদাতুল কারী ৪/৩০৫; মাআরিফুস সুনান ৬/৯৮; তাকমিলা ফাতহুল মুলহিম ৪/২৬৮; মাজমুআতুল ফাতাওয়া, ইবনে তাইমিয়া ২২/১০৯, ১১৪) ও আহসানুল ফতোয়া খণ্ড ৫ পৃষ্টা ১৯৯, এয়ালাউস সুনান খণ্ড ১৭ পৃষ্টাঃ ৮২১, আহকামুল কোরআন খণ্ড ৩, পৃষ্টাঃ ৪২২, আহসানুল ফতোয়া ৮/৪০, এমদাদুল ফতোয়া ৪/২০০, তাফসীরে কুরতবী ১৪/২৪৩, তাফসীরে তবারী ১০/৩৩১, তাফসীরে তবারী ১০/৩৩২, আহকামুল কোরআন ৩/৪১০, তাফসীরে ইবনে কাসীর ৩/৮২৪, আহকামুল কুরআন, জাসসাস ৩/৩৭২, তাফসীরে কুরতুবী ১৪/১৫৬; জামেউল বয়ান, তাফসীরে রূহুল মাআনী ২২/৮৮)


সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করুনঃ

এডমিন

আমার লিখা এবং প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা সম্পূর্ণ বে আইনি।

0 facebook: